banglanewspaper

মনির হোসেন জীবন, গাজীপুর: জঙ্গিনেতা মুফতি আবদুল হান্নানসহ ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার ২১ আসামিকে বহনকারী প্রিজন ভ্যানে বোমা হামলা হয়েছে।

গতকাল সোমবার সন্ধ্যা পৌনে ছয়টায় টঙ্গীর কলেজ গেট এলাকায় এ হামলা হয়। ঘটনাস্থল থেকে চাপাতি ও বোমাসহ এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। প্রিজন ভ্যানটি পুলিশ প্রহরায় ঢাকার আদালত থেকে গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগারে যাচ্ছিল।

এসময় মোস্তফা কামাল (২২) নামের এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। 

সোমবার বিকালে গাজীপুরের টঙ্গীর কলেজ গেইট এলাকায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে এ ককটেল হামলার ঘটনাটি ঘটে।

আটককৃত মোস্তফা কামাল ময়মনসিংহ জেলার তারাকান্দা থানার পাগলী এলাকার মোজাম্মেল হোসেনের ছেলে।

গাজীপুর ট্রাফিক বিভাগের পরিদর্শক মো. হাফিজুল ইসলাম ‘বাংলাদেশ নিউজ আওয়ার’কে জানান, জেএমবি নেতা মুফতি হান্নানসহ তার আরো কয়েকজন সহযোগীকে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত থেকে কাশিমপুর কারাগারে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। পথে বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে পুলিশের প্রিজন ভ্যানটি টঙ্গীর কলেজ গেইট এলাকায় পৌঁছালে প্রিজন ভ্যানকে লক্ষ্য করে ওই যুবক দুটি হাত বোমা নিক্ষেপ করে। বোমা দুটি রাস্তায় পড়ে বিষ্ফোরিত হয়। 

বোমা বিষ্ফোরণের শব্দ পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে ওই যুবককে ২৫-৩০টি হাত বোমা এবং নগদ সাড়ে সাত হাজার টাকাসহ আটক করি। এ ঘটনায় কেউ আহত হয়নি এবং প্রিজন ভ্যানে কোন প্রকার বোমার আঘাত লাগেনি। 

তিনি আরো জানান, আটককৃত যুবক প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছে ১০ হাজার টাকার বিনিময়ে প্রিজন ভ্যান লক্ষ্য করে সে বোমা নিক্ষেপ করেছিল। আটক ওই যুবককে টঙ্গী থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে সোমবার রাতে গাজীপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন-অর-রশিদ জানান, মুফতি হান্নানসহ তার সহযোগিকে ছিনতাই করতেই পুলিশের প্রিজন ভ্যানে হামলা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। এ ব্যাপারে তদন্ত শেষে বিস্তারিত জানানো হবে।
 

ট্যাগ: