banglanewspaper

নেত্রকোনা প্রতিনিধি: নেত্রকোনায় প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় কলেজ ছাত্রীকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে আহত করেছে এক বখাটে। গতকাল মঙ্গলবার বিকালে নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলা পৌর এলাকার শান্তিনগর মহল্লায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা আহত ছাত্রীকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে পাঠিয়েছে। আহত কলেজ ছাত্রী জান্নাতুল ফেরদৌস কেন্দুয়া পারভিন সিরাজ মহিলা কলেজের এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী।  

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, পার্শ্ববর্তী কিশোরগঞ্জ জেলার ইটনা থানার পাথাইরকান্দি গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল লতিফের মেয়ে জান্নাতুল কেন্দুয়া মহিলা কলেজে ভর্তি হয়। উপজেলার পৌর এলাকায় শান্তিনগর মহল্লায় একটি ভাড়া বাসায় থেকে কলেজে পড়াশোনা করে আসছিল। বেশ কিছুদিন আগে একই এলাকার সোহাগের শ্যালক বখাটে ইমন (২২) তাকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসে। ইমন কেন্দুয়া উপজেলার মোজাফফরপুর ইউনিয়নের গগডা গ্রামের ভুঁইয়া পাড়ার মহর আলীর ছেলে।  

গত দুইদিন ধরে সে শান্তিনগর ভগ্নিপতি সোহাগের বাসায় অবস্থান করছিল। সেখানে থেকে ইমন মেয়েটিকে প্রস্তাব দিয়ে আসছিলো। পরবর্তীতে আজ কলেজ থেকে ফেরার পর বিকালে শান্তিনগর এলাকার একটি সড়ক থেকে আহত অবস্থায় ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে এলাকাবাসী।

আহত কলেজ ছাত্রীর মাথার চুল কাটা এবং সমস্থ শরীরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখমের চিহ্ন রয়েছে।

এ ব্যাপারে কেন্দুয়া থানার ওসি মোঃ সিরাজুল ইসলাম ছাত্রীকে কোপানোর ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ইমন নামের ছেলেটির কথাই শোনা যাচ্ছে। তবে সে যেখানেই পালিয়ে থাক ধরা পড়তেই হবে।

ট্যাগ: