banglanewspaper

শামসুল খান, কুষ্টিয়া: নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪র্থ বর্ষের মেধাবী ছাত্র তৌহিদুল ইসলাম লিপু অপহরণ ও হত্যা মামলায় দুই আসামীর ফাঁসি ও ৮ আসামীর যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। এছাড়া ১৮ আসামীর মধ্যে বাকিদের বিভিন্ন মেয়াদে জেল ও জরিমানা দেয়া হয়েছে।

বুধবার দুপুরে কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক এবিএম মাহমুদুল হক এ রায় ঘোষনা করেন। রায় ঘোষনার সময় আদালতে ৯ আসামী উপস্থিত থাকলেও এক ফাঁসির আসামীসহ বাকিরা পলাতক রয়েছে। 

আদালত সূত্র জানায়, ২০১৪ সালের ৩১ আগষ্ট লিুপকে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়া হয়। লিপুকে ফেরত দেয়ার জন্য অপহরণকারিরা তার পিতা ওয়াহিদুল ইসলামের নিকট ফোনে প্রথমে ৩ কোটি টাকা দাবি করে। পরবর্তিতে লিপুর পিতা বাদী হয়ে ৪ সেপ্টেম্বর কুষ্টিয়া মডেল থানায় বাপ্পী ও সুমনকে আসামী করে মামলা করে। পরিবর্তিতে পুলিশ আসামীদের আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে লিপু অপহরণ ও হত্যাকান্ডের বিষয়টি স্বীকার করে শুভসহ জড়িত অন্যদের নাম প্রকাশ করে জবানবন্দি দেয় আদালতে। 

নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্র তৌহিদুল ইসলাম লিপু

পুলিশ মামলাটি তদন্ত করে ১৮জনকে আসামী করে আদালতে চার্জশীট দাখিল করে। আদালত মূল হোতা বাপ্পী ও সুমনকে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন। এর মধ্যে সুমন পলাতক রয়েছে। এদিকে আদলতের রায়ে সন্তষ্ট হতে পারেনি লিপুর পরিবার।

লিপুর পিতা অগ্রনী ব্যাংক কর্মকর্তা ওয়াহেদুল ইসলাম বলেন, এ হত্যাকান্ডের মাস্টারমাইন্ড যাবজ্জীবন কারাদন্ডপ্রাপ্ত আসামী শুভ। আমরা তার মৃত্যুদন্ড আশা করেছিলান। তিনি বলেন, এ বিষয়ে আমরা আইজীবিদের সাথে কথা বলে উচ্চ আদালতে আপিল করবো।

ট্যাগ: Banglanewspaper কুষ্টিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ছাত্র নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় লিপু ফাঁসি