banglanewspaper

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার তেলিগাতী গ্রামে মাদক ব্যবসায় বাধা দেওয়ায় সাউথ শেখ (২২) ও রমিন শেখ (১৯) নামে দু’যুবক কে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বর্তমানে তারা গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ব্যাপারে গোপালগঞ্জ সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

জানা গেছে তেলিগাতী গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য খসরুল শেখের নেতৃত্বে কুব্বত শেখ, খলিল শেখ, লিটু শেখ, ঠান্ডা শেখ ও অহিদ শেখ দীর্ঘ দিন যাবত ফেনসিডিল, গাজা, হিরোইন ও ইয়াবা জাতীয় মাদক দ্রব্য বেচা-কেনা করছিল। এই সকল মাদক ব্যাবসায়ীদের কারনে দিন দিন এলাকার পরিবেশ বিনষ্ট হচ্ছে। সোমবার একই এলাকার অহিদ শেখের ছেলে সাউদ শেখ ও ফুলমিয়া শেখের ছেলে রমিন শেখ মাদক ব্যাবসায়ীদের মাদক ব্যাবসা করতে নিষেধ করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ওই সময়ই তারা দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে সাউদ শেখ ও রমিন শেখকে। পরে তাদেরকে গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে কাঠি ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ বাচ্চু শেখ বলেন, খসরুল শেখ ও তার ভাই কুব্বত শেখ এরা মাদক স¤্রাট। তারা একাধিকবার পুলিশের কাছে ধরা পড়েছে, পরে তারা জামিন নিয়ে পুনরায় আবার মাদক ব্যাবসা চালিয়ে যায়। খসরুল শেখের মাদক মামলায় ৯ বছরের সাজা হয়েছে, বর্তমানে সে জামিনে এসে আবারো মাদক ব্যাবসা চালিয়ে যাচ্ছে।

এ ব্যাপারে গোপালগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: সেলিম রেজা বলেন, অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত শেষে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ট্যাগ: Banglanewspaper গোপালগঞ্জ মাদক কুপিয়ে জখম