banglanewspaper

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: যৌন কেলেঙ্কারির কারণে ২০১৮ সালের সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার স্থগিত করা হয়েছে। আজ ৪ মে (শুক্রবার) সুইডিশ অ্যাকাডেমি চলতি বছরে সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার স্থগিত করে। বিবিসির খবরে এমনটি বলা হয়েছে।

এক বিবৃতিতে সুইডিশ অ্যাকাডেমি জানিয়েছে, ২০১৮ সালের নোবেল সাহিত্য পুরস্কারটি ‘রিজার্ভড প্রাইজ’ হিসেবে ২০১৯ সালের পুরস্কারের সঙ্গে ঘোষণা করা হবে।

সুইডেনে সংস্কৃতি-বিষয়ক সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ প্রতিষ্ঠান হিসেবে পরিচিত ‘সুইডিশ অ্যাকাডেমি’। কয়েক সপ্তাহ আগে অ্যাকাডেমির ছয় সদস্য পদত্যাগ করেন। তাদের মধ্যে প্রতিষ্ঠানটির প্রধান সারা দানিউসও আছেন। হঠাৎ করে ছয় সদস্যের পদত্যাগে ২৩০ বছরের পুরনো এ অ্যাকাডেমি বিপর্যয়ের মধ্যে পড়ে। অ্যাকাডেমির প্রত্যেক সদস্যই গোপন ব্যালটের মাধ্যমে নির্বাচিত হন। পরে তাদের মনোনয়ন দেন সুইডেনের রাজা। আর একবার নির্বাচিত ব্যক্তি আজীবনের জন্য সদস্য হন।

গত নভেম্বরে ‘হ্যাশ ট্যাগ মি টু’‌ ক্যাম্পেইনের সময় সুইডিশ অ্যাকাডেমির ১৮ জন নারীকর্মী যৌন হেনস্থার অভিযোগ আনেন সংস্থাটির আর্নল্ট নামের এক কর্মকর্তার বিরুদ্ধে। ১৯৯৬ থেকে ২০১৭ পর্যন্ত আর্নল্ট  বিভিন্ন সময়ে বহু নারীকর্মীকে যৌন হেনস্থা করেছেন বলে অভিযোগ করা হয়েছে।

ওই ১৮ জনের মধ্যে দু’‌জন গ্যাব্রিয়েলা হাকানসন এবং এলিজে কার্লসন সংবাদমাধ্যমের সামনে মুখও খোলেন। পরের দিনই সংস্থার প্রধান সারা জানান, আর্নল্টের সঙ্গে সমস্ত রকমের সম্পর্ক ছিন্ন করেছে সুইডিশ অ্যাকাডেমি। সর্বশেষ সুইডিশ অ্যাকাডেমি আজ শুক্রবার ২০১৮ সালের সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার স্থগিত করার ঘোষণা এলো। 

উল্লেখ্য, ১৯০১ সাল থেকে শুরু হওয়া সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার এ পর্যন্ত সাতবার বন্ধ রাখা হয়েছিল। আর ওই সালগুলো হলো ১৯১৪,১৯১৮, ১৯৩৫, ১৯৪০ এবং ১৯৪১-৪৩।

ট্যাগ: banglanewspaper সাহিত্যে নোবেল