banglanewspaper

হাতে ফাইলপত্র নিয়ে ঘোরার দিন আর নেই। মেমরি কার্ডই আপনার যাবতীয় তথ্যের ভাণ্ডার। হাজার হাজার ওয়ার্ড ফাইল, ছবি অনায়াসে জায়গা করে নিচ্ছে এসডি কার্ডে। কিন্তু, সেই এসডি কার্ড যদি বিগড়ে যায়, যদি রিড করা না যায়? কী করবেন? আসুন দেখে নিই কিছু উপায়-

আপনার কার্ডের ধরন আগে জানুন: সর্বপ্রথম আপনাকে কার্ডের ধরন জানার চেষ্টা করতে হবে। মানে, ব্যবহৃত মেমরি কার্ডটি সামান্য SD কার্ড নাকি উচ্চ ক্ষমতার SD কার্ড, সেটা জেনে নেওয়াটা খুব জরুরি। তার কারণ, কার্ড অনুযায়ী মেমরির জন্য জায়গা বরাদ্দ থাকে।

ডিভাইস প্রস্তুতকারকের সাইটে যান: যদি আপনার ডেটা SDHC কার্ডে থাকে, তা হলে, সেটা রিড করাতে SDHC ডিভাইস জরুরি। কিছু ডিভাইসের সফটওয়্যার ডাউনলোড করে নিতে পারবেন। এর পর আপগ্রেড করে নিলে, কার্ড রিড করতে পারবেন। যে কারণে, ডিভাইস প্রস্তুতকারকের ওয়বেসাইটে গিয়ে ঢুঁ মারুন।

SD কার্ড স্ক্যান করুন: অনেক সময় কার্ড স্ক্যান করলেই সমস্যা মিটে যায়। এতে করাপ্ট ফাইল ঠিক নাও হতে পারে, কিন্তু তা-ও চেষ্টা করে দেখতে পারেন। এর পর, মাই কম্পিউটার থেকে উইন্ডোজ এক্সপ্লোরারে কার্ডটিকে খুঁজে নিয়ে, তাতে রাইট ক্লিক করুন। পপআপ মেনু থেকে প্রপাটিজে যান। ওখানে নতুন একটি উইন্ডো দেখতে পাবেন, তার মধ্যে পাইচার্ট তৈরি হবে। এর পর টুল ট্যাব সিলেক্ট করে ফের এরর চেকিং বাটনে ক্লিক করুন।

এর পরেও যদি অ্যাক্সেস না করা যায়: সম্ভব হলে ডিরেক্টরি ফাইলের একটা তালিকা বানিয়ে নিন। ড্রাইভ লেটারে রাইট ক্লিক করে, প্রপার্টিজে সিলেক্ট করুন। পাই চার্টে গিয়ে ডিভাইসের ইউজড স্পেস দেখতে পাবেন। যদি দেখুন স্পেস পুরো খালি, তার মানে ফাইল ডিলিট হয়ে গেছে বা মুছে গেছে। এখান থেকে ফাইল রিকভারি করতে গেলে, আনডিলিট ফাংশনের সাহায্য নিতে পারেন।

যদি ফাইল না বাঁচাতে পারেন: যদি দেখেন কার্ড এবার ঠিকঠাক রিড হচ্ছে, কিন্তু, ফাইল সেভ করতে পারেননি, তার মানে কার্ডের কোথাও রাইট প্রোটেকশন থাকতে পারে। সেক্ষেত্রে কাডের লক আগে খুলতে হবে। এর পর আনলক কার্ড সেভ করুন।

ট্যাগ: