banglanewspaper

রোববার কক্সবাজার শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে স্কটল্যান্ডকে ১১৪ রানে হারিয়ে টানা দ্বিতীয় জয় পায় বাংলাদেশ। শান্তর অপরাজিত শতকে ৫০ ওভারে ৬ উইকেটে ২৫৬ রান তুলেছিল বাংলাদেশ। স্কটল্যান্ড গুটিয়ে যায় ১৪২ রানে।

সকালে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা বাংলাদেশের শুরুটা আবারও ছিল অস্বস্তির। আগের ম্যাচের মতো এবারও ত্রাতা শান্ত। এবার আর সত্তরে থামেননি সহ-অধিনায়ক; দলকে উপহার দিয়েছেন এবারের বিশ্বকাপের প্রথম শতক। বাংলাদেশ ছাড়িয়ে যায় আড়াইশ’। দুর্বল স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে জয় অনেকটা নিশ্চিত হয়ে যায় তাতেই।

রান তাড়ায় কখন জয়ের সম্ভাবনা জাগাতে পারেনি স্কটিশরা। দেখা যায়নি রান তাড়ার ইচ্ছেটাও। শুরু থেকেই ছিল উইকেট আঁকড়ে রাখার চেষ্টা। ৪৮ রানের উদ্বোধনী জুটিও তাই হুমকি হতে পারেনি। মিরাজের বলে শান্তর দুর্দান্ত ক্যাচে ওই জুটি ভাঙার পর তারা উইকেট হারিয়েছে নিয়মিত বিরতিতেই।

শেষ পর্যন্ত ধুঁকতে ধুঁকতে স্কটিশরা অলআউট হয় ১৪২ রানে। ৫০ করেছেন কেবল আজিম দার।

২৭ রানে ৩ উইকেট নিয়েছেন বাঁহাতি স্পিনার সালেহ আহমেদ শাওন। সঞ্জিত সাহার নিষেধাজ্ঞায় একাদশে সুযোগ পাওয়া বাঁহাতি স্পিনার আরিফুল ইসলাম নিয়েছেন দুটি। তবে পুরোনো বলে ৩ উইকেট নিয়ে আবারও দলের সফলতম বোলার মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন (৩/১৭)। মিরাজ ৯ ওভারে ২৭ রান দিয়ে নিয়েছেন এক উইকেট।

যুব বিশ্বকাপে আগের ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকা অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বিপক্ষে ফিরেছিলেন ৭৩ রানে। 

ট্যাগ: