banglanewspaper

মোস্তাফিজুর রহমান, বরগুনা: বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলায় সৌদি প্রবাসী ক্লিনিকে ভুল চিকিৎসায় প্রসূতি মোছা. সালমা বেগম (২২) নামে মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীদের সূত্রে জানা যায়, ১৪ জুলাই শনিবার ভোর রাত সাড়ে ৩টার দিকে পাথরঘাটা সৌদী প্রবাসী ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে এ ঘটনা ঘটে।

মৃত সালমা বেগমের স্বামী মো. মনির ও বাবা মো. হানিফা সাংবাদিকদের বলেন, সালমার প্রসব ব্যথা শুরু হলে তাকে পাথরঘাটা সৌদী প্রবাসী ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিয়ে আসা হয়। রাত আড়াইটার দিকে চিকিৎসক রুনা রহমান অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে সিজার করেন। ঘণ্টা খানেক পর অপরাশেন থিয়েটার থেকে বের হয়ে এসে বলেন, সালমার প্রেসার হাই হয়ে গেছে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বরিশালে নিয়ে যেতে হবে।

অ্যাম্বুলেন্সে করে সালমাকে বরিশাল নেওয়ার পথে সন্দেহ হলে তারা ফের পরীক্ষার জন্য পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে নিয়ে যান। সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক ভোর ৫টার দিকে শারীরিক অবস্থা পরীক্ষা করে সালমাকে মৃত ঘোষণা করেন এবং জানান রোগী আরও ১ থেকে দেড় ঘণ্টা আগে মারা গেছেন।

সালমার স্বামী মো. মনির হোসেন বলেন, ডাক্তারের ভুল চিকিৎসা এবং অবহেলার কারণেই আমার স্ত্রী মারা গেছে। আমি এর বিচার চাই।

এদিকে, মৃত্যুর খবর শুনে আত্মীয় স্বজন এবং এলাকাবাসী সৌদী প্রবাসী ক্লিনিক ঘেরাও করে রেখেছেন। ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ এবং চিকিৎসক ঘটনার পর থেকেই পলাতক রয়েছেন।

ট্যাগ: Banglanewspaper পাথরঘাটা সৌদি প্রবাসী ক্লিনিক