banglanewspaper

জাহিদুল ইসলাম মেহেদী, বরগুনা: বরগুনার পাথরঘাটার পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের ফেরীঘাট এলাকার মোঃ সোহেল (২২) এর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন তার মা লায়লা বেগম (৫৫)।

রবিবার সকাল ১১টায় বরগুনা জেলা প্রেসক্লাব হল রুমে তালুকদার মাসউদ এর সভাপতিত্ত্বে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় লায়ল বেগম জানান, তার ছেলে মোঃ সোহেল (২২) খারাপ লোকদের সাথে মিশে মাদক আসক্ত হয়ে পরে। পরে আমি জানতে পেয়ে তাকে আইনের হাতে তুলে দেই। দীর্ঘদিন যাবত জেল হাজতে থাকার পর আমি তাকে দেখতে যাই। তখন সোহেল আমাকে কেদে বলেন মা আমি ভালো হয়ে গেছি। আর কোন দিন মাদকের সাথে জরিত হব না। পরে আইনজীবিদের মাধ্যমে তাকে জামিনে বের করি।

কয়েক দিন পর আমার ছেলে বাজারে গেলে খায়রুল ও ইসমাইল তাকে ডেকে বলে আমরা থানার দালাল, আমাদের সাথে তোর জরিত থাকতে হবে, তা না হলে তোকে আবার জেলে পাঠাব। ১২/০৭/২০১৮ ইং তারিখ আমার ছেলে পাথরঘাটা থানায় উপস্থিত হইয়া এএসআই তরিকুল ইসলাম এর নিকট নদির পার এলাকার হায়দার এর ছেলে খায়রুল ও সেলিম এর ইসমাইল এর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে। তারা জানতে পেরে আমার ছেলে আব্বাস হোটেলে খাবররত অবস্থায় খায়রুল ও ইসমাইল টেনে হেচড়ে হোটেল থেকে বের করে নিয়ে মারধর করে ও ৫ পিচ ইয়াবা পকেটে দিয়ে চৌরাস্তায় নিয়ে যায়। তখন পুলিশ তাকে আটক করে। মামলা দিয়ে জেল হাজতে প্রেরণ করে। যার মামলা নং-জিআর২২৬/১৮।

তাতক্ষনিক আমি বরগুনা পুলিশ সুপার বিজয় বসাক এর নিকট ফোন করলে তিনি ওসির নিকট যেতে বলেন। আমি ওসির কাছে যেতে চাইলে পুলিশ আমাকে থানা বের করে দেয়। আমার ছেলে ভালো হয়ে গেছে। সে নির্দোষ। তার মুক্তির দাবী করছি। এই সরযন্ত্রকরীদের আইনের আওতায় এনে বিচারের দাবী জানাচ্ছি।  এ বিষয়ে পাথরঘাটা থানার অফিসার ইনচার্জ মোল্লা মোঃ খবির আহম্মেদ বলেন থানায় মামলা হয়েছে, তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ট্যাগ: banglanewspaper পাথরঘাটা