banglanewspaper

বিশ্বের সবথেকে ক্ষমতাধর দুই ব্যক্তির মধ্যে একজন হলেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। বিশ্বকাপের পুরস্কার বিতরণী পর্বে এমনটি ঘটেছে বলে মনে হতেই পারে। ফ্রান্সের বিশ্বকাপের স্বপ্নের শিরোপা জয়ের পর বিজয়োৎসব শুরু হওয়ার পরপরই মাঠে নামে ঝুম বৃষ্টি।

বিশ্বকাপের পুরস্কার বিতরণী মঞ্চে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ছাড়া সব অতিথিরা ভিজেছেন বৃষ্টিতে। বৃষ্টিতে ভেজার মধ্যে রয়েছেন- ফিফা সভাপতি, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট, ক্রোয়েশিয়ার প্রেসিডেন্টসহ মঞ্চে উপস্থিত অন্য সবাই। 

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ছাতার নিচে থাকলেও বৃষ্টিতে ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোর সঙ্গে ক্রোয়েশিয়ার প্রেসিডেন্ট কোলিন্দা গ্রাবার- কিতারোভিচের বিশেষ রসায়ন ক্যামেরার চোখ ফাঁকি দিতে পারেনি। তারা দুজনই একসঙ্গে বৃষ্টিতে ভিজেছেন। বিভিন্ন খুনসুটি করেছেন। একে অপরকে জড়িয়ে ধরার দৃশ্যও দেখা গেছে টিভি পর্দায়।

তবে কিছুক্ষণ পর অবশ্য সবার মাথার উপরই ছাতা উঠল। কিন্তু ততক্ষণে পোষাক-শরীর ভিজে চুপচুপে। বৃষ্টির ফোঁটা পেল না শুধু স্বাগতিক রাশিয়ার প্রেসিডেন্টকে। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাবান দুই ব্যক্তির একজন। সবাইকে বৃষ্টিতে রেখে নিজের উপর ছাতা উঠিয়ে সেই ক্ষমতার প্রভাবই কি দেখালেন পুতিন!

নয়তো মঞ্চে অন্য যারা ছিলেন, তারা সবাই তো ছিলেন তার অতিথি। নিজে ভিজে অতিথিদের রক্ষা করাই কি উচিত ছিল না তার! অথচ তিনি করলেন উল্টো কাণ্ড। অতিথিরা যে ভিজছেন, সে দিকে তার খেয়ালই নেই। ছাতার ছায়ায় দাঁড়িয়ে তিনি নিঃসংকোচে দিয়ে গেলেন পুরস্কার।

দলের খেলোয়াড় এবং দর্শকদের তপ্ত হৃদয়ই শুধু সিক্ত করেনি, হঠাৎ নামা বৃষ্টি দুই ক্ষমতাবানের স্বার্থবাদী মনোভাবকেও ফুটিয়ে তুলল আপন মহিমায়!

ট্যাগ: banglanewspaper পুতিন রাশিয়া বিশ্বকাপ