banglanewspaper

দেশি নাটকের বাজার ধীরে ধীরে দখল করে নিচ্ছে ভিডিও নেটওয়ার্কিং সাইট ইউটিউব! কিন্তু যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে গিয়ে বাংলাদেশের নাটকের ভাষা, দৃশ্য সবকিছুই পাল্টে যেতে শুরু করেছে। 

অশ্লীলতা নামের অশনিসংকেতের আতঙ্কে এখন অনেকেই!

ইউটিউবে নাটক আর শর্ট ফিল্মের সংখ্যা বেড়েছে! এমনকি নির্মিত হচ্ছে ওয়েবসিরিজ! গণহারে সেই নির্মাণ আর ভিউয়ার বাড়াতে গিয়ে যা হচ্ছে তা রীতিমতো আতঙ্কজনক! সোজা ভাষায় অশ্লীলতা বাড়ছে!

ইউটিউবে শর্টফিল্ম নামের সেই ছোট্ট নাটকের গল্প জুড়ে থাকছে যৌনতা! ভিউয়ার বাড়াতে গিয়ে এমনটা করছেন নির্মাতারা। কোনো সেন্সর না থাকায় অশ্লীল দৃশ্যের সঙ্গে তারচেয়েও অশ্লীল সংলাপে অভিনয় করে যাচ্ছেন উঠতি থেকে শুরু করে প্রতিষ্ঠিত শিল্পীরা।

শুধু কি অশ্লীল দৃশ্য আর সংলাপ, ইউটিউবভিত্তিক নাটক-শর্ট ফিল্মে মদ-মাদকের অবাধ ব্যবহারটাও চোখে পড়ছে নিয়মিত। নির্মাতারা বলেন তাতে নাকি হিট বাড়ে। ঝামেলাবিহীনভাবে পয়সা কামানো খুই সহজ হয়।

এই সময়ের জনপ্রিয় নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী বলেন, এক শ্রেণির নির্মাতা সস্তা জনপ্রিয়তার জন্য এই ধরনের নাটক নির্মাণ করছে। স্বাধীন মাধ্যম হিসেবে অনেকে ইউটিউবকে বেছে নিচ্ছে। কিন্তু স্বাধীনতার অর্থ এই নয়, যা ইচ্ছে তা নির্মাণ করে প্রচার করবে। একদিকে আমাদের টিভি নাটকের দর্শক কমছে। পার্শ্ববর্তী দেশের টিভি চ্যানেলের সিরিয়ালের প্রতি তাদের আকর্ষণ। তার ওপর এখন আবার এই ধরনের অশ্লীলতা বাড়তে থাকলে দর্শক আমাদের নাটক দেখা বন্ধ করে দেবে।  

ট্যাগ: banglanewspaper অশ্লীলতা