banglanewspaper

পিরোজপুর প্রতিনিধি: স্থগিত করা হয়েছে পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলা ছাত্রলীগের নবগঠিত আলোচিত বিতর্কিত কমিটি। গত ২৯ এপ্রিল মঠবাড়িয়া উপজেলা ছাত্রলীগের দুই সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি আত্মপ্রকাশ পায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইজবুকে।

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সম্পাদক স্বাক্ষরিত ফেইজবুকে  প্রকাশ পাওয়া সেই কমিটি নিজেদের স্বাক্ষরিত ও  বৈধ কমিটি বলে জানায়। এরপর থেকেই মঠবাড়িয়া উপজেলা ছাত্রলীগের  রাতের এ কমিটি নিয়ে চলতে থাকে নানা ঘটনা, অভিযোগ ওঠে কমিটি গঠনে লংঘন করা হয়েছে সংগঠনের গঠনতন্ত্রের অধিকাংশ ধাপই।

জানা যায়, পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষনার ক্ষেত্রে প্রায় প্রতি মেয়াদেই দেখে যায় বাড়তি জটিলতা । এর কারন হিসেবে মঠবাড়িয়া উপজেলায় একাধিক হাই প্রোফাইল কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতার বাড়ীকেই মনে করা হয়। গত ২৯ এপ্রিল কোন সম্মেলন বা প্রস্তুতি ছাড়াই গভীর রাতে শরিফুল ইসলাম রাজুকে সভাপতি ও মশিউর রহমান মতুর্জাকে সাধারণ সম্পাদক করে ২ সদস্যের কমিটি ঘোষনা করে জেলা ছাত্রলীগ।

এরপরই কমিটির বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ করেন ছাত্রলীগের আরেক পক্ষ,তাদের দাবীর প্রতি সমর্থন দেয় আওয়ামী লীগ।

পিরোজপুর প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে কমিটির সভাপতি সম্পাদকের বিরুদ্ধে সংগঠনের গঠনতন্ত্রে নির্ধারিত বয়সসীমা অতিক্রম করা, বিবাহিতসহ নানা অভিযোগ করেন উপজেলা ছাত্রলীগের বড় অংশ। পাশাপাশি এ সব অভিযোগের প্রমানপত্র তুলে ধরেন।

সম্মেলনে অভিযোগ করা হয় এক নেতার হস্থক্ষেপে ছাত্রলীগে গঠনতন্ত্র সর্ম্পূন উপেক্ষা করা হয়েছে। তারা এ বিষয়ে জেলা ও কেন্দ্রে লিখিত অভিযোগ দিবেন।এ ছাড়াও কমিটির দুজনের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ আনেন। এর পরে জেলার নতুন কমিটি ঘোষনার পরে গত ১৬ জুলাই জেলা কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত চিঠিতে এ কমিটিকে সাময়িক স্থগিত ঘোষনা করে। 

পিরোজপুর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম টিটু জানান, মঠবাড়িয়া উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটির বিরুদ্ধে গঠনতন্ত্র মোতাবেক বয়সের সীমা অতিক্রম, বিবাহিত, স্থানীয় আওয়ামী লীগের সাথে দূরত্ত্বসহ নানা অভিযোগ পাওয়া গেছে। এসব অভিযোগের ভিত্তিতে উপজেলা কমিটি সাময়িক স্থগিত করে তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

ট্যাগ: Banglanewspaper মঠবাড়িয়া উপজেলা