banglanewspaper

নিজস্ব প্রতিনিধি: পোড়া তেলে খাবার ভাজার অপরাধে সিপি ফাইভ ষ্টারের গুলশান শাখাকে জরিমানা করা হয়েছে। তারা পুরনো তেলে মুরগি ও ফ্রেঞ্চফ্রাই ভাজছিল। এছাড়া গুলশানের ফখরুদ্দিন বিরিয়ানির ১ কেজির দইয়ের পাতিল ওজন করে দেখা গেছে তাতে দুইশ ১০ গ্রাম কম রয়েছে। এই অভিযোগে তাদেরকে জরিমানা গুণতে হয়েছে। 

মঙ্গলবার বিকালে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আব্দুল জব্বার মন্ডল ও সহকারী পরিচালক জান্নাতুল ফেরদাউস গুলশান-২ ও বাড্ডায় অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযানে সহায়তা করে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন-১ ও ১১।

অভিযান শেষে সহকারী পরিচালক আব্দুল জব্বার মন্ডল জানান, ‘দীর্ঘদিনের পোড়া তেল ব্যবহার করে মুরগি ও ফ্রেঞ্চফ্রাই ভাজার অপরাধে গুলশানের সিপি ফাইভ ষ্টারের শাখাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া গুলশান-১ নম্বর চত্বরের ফখরুদ্দিন বিরিয়ানীতে বোরহানীর মেয়াদ উত্তীর্ণ ছিল। এমনকি তাদের এক কেজির দইয়ের পাতিল ওজন করে দেখা গেছে তাতে দুইশ ১০ গ্রাম কম। দুই অভিযোগে তাদেরকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।’

অভিযানে গুলশান-১ এর বিআইও ফার্মেসি, মধ্য বাড্ডার মেডিডেন্ট ফার্মেসি এবং উত্তর বাড্ডার বুশরা মেডিসিনে গিয়ে দেখা যায়, তাদের বেশ কয়েকটি ব্যান্ডের ঔষধের মেয়াদ উত্তীর্ণ। এর মধ্যে বিআইও ফার্মেসিকে ৩০ হাজার, মেডিডেন্ট ফার্মেসিকে ৩০ হাজার এবং বুশরা মেডিসিনকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এছাড়া নিদ্ধারিত দামের চেয়ে বেশি দামে পানি বিক্রির অভিযোগে মধু মিলন চাইনিজ সেন্টারকে ২০ হাজার টাকা এবং অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে খাবার তৈরি ও বিক্রির অভিযোগে হযরত শাহ চন্দ্রপুরী হোটেল এন্ড বিরিয়ানি হাউজকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

ট্যাগ: ফখরুদ্দিন বিরিয়ানি