banglanewspaper

গত ২৯ জুলাই রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় দুই কলেজ শিক্ষার্থী দিয়া ও আব্দুল করিম নিহত হয়। এরপর রাজধানী সহ দেশের বিভিন্ন স্থানে নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনে নামে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা। শুক্রবার সন্ধ্যায় ফেসবুক পোস্টে আন্দেলনরত শিক্ষার্থীদের আন্দোলন ছেড়ে ক্লাসে যাওয়ার আহ্বান জানান বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

সাকিব আল হাসান এই পোস্ট দেয়ার পর সমালোচনার তৈরি হয়। ফেসবুকে ওই পোস্টের কমেন্টে অনেকে বিভিন্নভাবে সমালোচনা করেন। শেষমেশ সাকিব আল হাসান এই পোস্ট ডিলেট করে নতুন করে ভিডিও পোস্ট করেন। ভিডিও পোস্ট করে সাকিব আল হাসান লিখেছেন, দয়া করে আমাকে ভুল বুঝবেন না।

ফেসবুকে সাকিব আল হাসান লিখেছেন, ‘আমার সকল ভক্তদের জানাচ্ছি যে আপনারা হয়তো আমার ব্যক্ত করা কথায় আমাকে ভুল বুঝছেন। দয়া করে আমাকে ভুল বুঝবেন না। আমারও আপনাদের সবার মতো পরিবার আছে, যাদের নিরাপত্তা আমার কাছেও অনেক বেশি মূল্যবান। আমি আপনাদেরই একজন, আমি সবসময় আপনাদের সাথে ছিলাম, আছি এবং কথা দিচ্ছি ভবিষ্যতেও থাকব। আমি শুধু বলতে চাই যে, আপনাদের আন্দোলনকে একটি সঠিক ফলাফলে পৌছে দেয়ার জন্যে আমাদের সরকারকে সুযোগ দেয়া উচিত যেন সরকার খুব দ্রুত আপনাদের দাবি বাস্তবায়ন করতে পারে।’

ভিডিওতে সাকিব আল হাসান বলেন, ‘আসসালামুআলাইকুম। আমি প্রথমেই বাংলাদেশের সকল ছাত্রছাত্রীকে ধন্যবাদ জানাতে চাই তাদের এই যুগান্তকারী আন্দোলনের জন্য। আমি তোমাদের এই আন্দোলনের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করছি। তোমাদেরকে আবারও ধন্যবাদ জানাচ্ছি। সেই সাথে আমি এটাও বলতে চাই এটা শুধু বাংলাদেশের ছাত্রছাত্রীদের দাবি হওয়া উচিৎ না। এটা বাংলাদেশের সকল মানুষের দাবি হওয়া উচিৎ। কারণ, প্রতি বছর সড়ক দুর্ঘটনা অনেক হচ্ছে এবং অনেক প্রাণ ঝরে যাচ্ছে। এটা আমাদের কারোরই কাম্য নয়। আমার বাচ্চা আছে। আপনারা যারা ভিডিওটি দেখছেন তাদের অনেকেরই বাচ্চা আছে, ফ্যামিলি আছে। আমরা সবাই চাই যে, আমাদের বাচ্চারা নিরাপদে রাস্তায় চলাফেরা করতে পারুক। সেই দিক থেকে চিন্তা করলে এই দাবিটা বাংলাদেশের সকল মানুষের হওয়া উচিৎ। এ কারণেই আমি সকল ছাত্রছাত্রীকে ধন্যবাদ দিতে চাই যে, তোমরা আমাদেরকে রাস্তা দেখিয়ে দিয়েছ। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এ বিষয়ে ভালোভাবে অবগত আছেন। তিনি বেশ কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন এবং করছেন। যেটা হয়তো বাস্তবায়ন হতে একটু সময় লাগবে। আমাদের উচিৎ হবে সকল ছাত্রছাত্রীকে এটা এখন বুঝানো যে, তাদের ক্লাসে ফিরে যেতে, ঠিকমতো পড়াশোনায় আবার মনোনিবেশ করতে। এই দাবি যদি পূরণ না হয় এবং ভবিষ্যতে যদি আমাদের এই আন্দোলন আবার করতে হয় তোমরা আমাকে তোমাদের পাশে সবসময় পাবে। এই প্রতিজ্ঞা আমি তোমাদের করছি। আশা করি তোমরা আমার ম্যাসেজটি বুঝতে পেরেছ। কারণ, আমরা সবাই মিলেই পারি বাংলাদেশকে একটি বেটার বাংলাদেশ হিসাবে গড়ে তুলতে। ধন্যবাদ সবাইকে।’

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে সাকিব আল হাসান এখন দলের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় রয়েছেন। রবিবার বাংলাদেশ সময় ভোর ছয়টায় শুরু হবে বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যকার তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ। সোমবার বাংলাদেশ সময় সকাল ছয়টায় শুরু হবে সিরিজের শেষ ম্যাচ। গত ১ আগস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে সাত উইকেটে হারে বাংলাদেশ।

ট্যাগ: banglanewspaper সাকিব