banglanewspaper

কিছু দিন আগে ভারতকে হারিয়ে এশিয়া চ্যাম্পিয়ন হয় বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল। ক্রিকেটের পর ফুটবলেও দুর্দান্ত বাংলাদেশের মেয়েরা। থিম্পুতে সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবল টুর্নামেন্টে নিজের প্রথম ম্যাচে উড়ন্ত সূচনা করেছে তারা। পাকিস্তানকে ১৪ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে লাল সবুজরা। স্ট্রাইকার শামসুন্নাহার একাই করেন পাঁচ গোল। প্রথমার্ধে ছয় গোলে এগিয়ে ছিল বাংলাদেশ।

তহুরা, সাজেদা, আনাই করেছেন দুটি করে গোল। আর একটি করে গোল করেছেন মনিকা, শামসুন্নাহার, মারিয়া ও আঁখি। পাকিস্তানের গোল সীমানায় ৫৮টি শট নিয়েছে বাংলাদেশ। জবাবে একটিও শটও নিতে পারেনি পাকিস্তান। খেলার পুরো সময় বল দখলে ছিল বাংলাদেশের।

সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ। এই টুর্নামেন্টে নবাগত পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শিরোপা ধরে রাখার মিশনে মাঠে নামে বাংলাদেশের মেয়েরা। একের পর এক আক্রমণে পাকিস্তানকে পাগল করে দেন শামসুন্নাহার. তহুরা, সাজেদা, আনাইরা।

তবে ১৪ নয়, বেশ কয়েকটা সহজ হাতছাড়া না হলে আরও বড় ব্যবধানে জিততে পারত বাংলাদেশ। অন্তত ২০ গোলে জিততে পারত তারা।

পাঁচ মিনিটে তহুরা খাতুন বাংলাদেশকে এগিয়ে নেন। ১৭ মিনিটে স্কোর লাইন ২-০ করেন মনিকা চাকমা। দুই মিনিট পর তহুরা খাতুন হেডে বল জালে জড়িয়ে করেন ৩-০। ৩১ মিনিটে শামসুন্নাহার স্কোর ৪-০ করেন। ৩৯ মিনিটে অধিনায়ক মারিয়া মান্ডা ব্যবধান আরও বাড়িয়ে নেন। পরের মিনিটে আঁখি খাতুন ২৫ গজ দূর থেকে লক্ষ্যভেদ করেন।

বিরতির পর বাংলাদেশের আক্রমণের ধারও আরও বেড়ে যায়। আট গোল আসে এই সময়ে। ৪৮ ও ৫৮ মিনিটে সাজেদা খাতুন দুই গোল করেন। ৫০,৫৪, ৫৭ ও ৯০ মিনিটে শামসুন্নাহার করেন আরও চার গোল। ৬০ ও ৮৮ মিনিটে ডিফেন্ডার আনাই দুই গোল করে দলকে আরও এগিয়ে নেন।

২০১৫ সালে ভুটানকে ১৫-০ গোলে হারিয়েছিল মেয়েদের অনূর্ধ্ব-১৪ দল।  ওই রেকর্ড অবশ্য ভাঙা হয়নি বৃহস্পতিবার। এদিকে দিনের উদ্বোধনী শ্রীলঙ্কাকে ১২-০ গোলে হারিয়েছে ভারত।

ট্যাগ: পাকিস্তান বাংলাদেশের মেয়ে গোল