banglanewspaper

     ========================
সন্তানের  আশ্রয়  যদি হয়, মায়ের  কোলে, 
 কেন  এত মা আজ বৃদ্ধাশ্রমেতে?
পিতা-মাতা মারা গেলে শিশু,এতিমখানায় যায়,
সন্তান থেকে বৃদ্ধ বয়সে,বৃদ্ধাশ্রমে কেনো  ঠাঁই? 

বৃদ্ধাশ্রমে  পিতামাতা  গর্ব করে  বলে,
ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার,বিদেশে আছে ছেলে!
এমন শিক্ষা কেমনে যে,এলো ঘরে? 
পিতামাতা ছাড়া জীবনের, আলো কে জ্বালে? 

আজ  থেকে দুই যুগ আগে, গেলে পরে, 
বৃদ্ধাশ্রমের ঠিকানা ছিলো না বাংলার ঘরে।  
 গরীব-দুঃখী, মনুষ্যত্ব আছে যার কাছে, 
কয়?রাখে নাতো তারা পিতামাতা বৃদ্ধাশ্রমেতে!

শিক্ষার আলো, ছিল না  যখন, 
বৃদ্ধাশ্রমের ঠিকানা  জানতো  না তখন, 
সারাদিন ব্যস্ত কাজ-কর্মের পরে,  
ঘরে এসে  বসতো জননীর পাশে। 

দেশে বিদেশে জ্ঞান অর্জন করতে গিয়ে, 
বৃদ্ধাশ্রমেরে আনিলো নিজে, আলেয়া ভেবে। 
এমন  আলেয়া আজ,সারা দেশের মাঝে, 
ভাবে না যে সে আলেয়ায়, যাবে নিজে শেষে। 

এখনো আছে সময়,ভাবো নিজে বসে। 
সন্তান হারা জীবন,করিবে কেমনে শেষে?
       শপথ  করো  আজ আপন  মনে বসে,
  পিতামাতা রবে মোর,জীবনের প্রতি নিঃশ্বাসে।

 যেমনটা করে  রেখেছিলো মোরে,
   আগলে ধরে দশ মাস  পেটে।  
  তেমনি করে  থাকবো  মোরা,
   মায়ের  চরণের নিচে  বসে।

  বৃদ্ধাশ্রম চায় না এদেশ,
 চায় শুধু  মায়ের  ছায়া। 
বিলুপ্ত  হোক  এমন  আশ্রম,
থাকবেনা কোন মা, সন্তান হারা।

 

 

ট্যাগ: banglanewspaper বৃদ্ধাশ্রম