banglanewspaper

বলিউড সুপারস্টার সালমান খান ‘গোল্ড’ সিনেমায় তাঁকে সুযোগ করে দিয়েছিলেন, সিনেপাড়ায় এমন গুজব রটায় মর্মাহত হয়েছেন অভিনেত্রী মৌনী রায়। তিনি বলেছেন, ১০ বছরের অভিনয় ক্যারিয়ার এবং বাঙালি হয়ে বাঙালি নারীর চরিত্রে অভিনয় করার পরও এমন গুজবে মর্মাহত তিনি।

বলিউড তারকা অক্ষয় কুমারের ছবি ‘গোল্ড’ দিয়ে বলিউডে অভিষেক হতে যাচ্ছে বাঙালি অভিনেত্রী মৌনী রায়ের। আগামী ১৫ আগস্ট ভারতের স্বাধীনতা দিবসে ছবিটি মুক্তি পাবে। মুক্তির কিছুদিন আগে এ গুজব রটায় হতাশ তিনি। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

গোল্ড ছবিতে অভিনয় করছেন, এমন ঘোষণা না দিয়েও গুজব রটেছে সালমান খান না কি মৌনী রায়কে বলিউড অভিষেকে সাহায্য করেছেন। ‘বিগ বস-১১’-এর একটি এপিসোডে সালমান খানের সঙ্গে মৌনী রায়ও উপস্থিত ছিলেন। এরপর থেকেই মূলত এ গুজব ছড়িয়ে পড়ে। মিথ্যে এ রটনার কথা বলতে বলতে ক্লান্ত এ অভিনেত্রী। বারবার তাঁকে এ নিয়ে প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হচ্ছে।

বোম্বে টাইমস-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মৌনী বলেন, তিনি শুধু গুজব দ্বারা ক্ষতিগ্রস্ত নন, আহতও হয়েছেন। ইন্ডাস্ট্রিতে ১০ বছর কাজ করা এবং জন্মগতভাবে একজন বাঙালি হওয়ার পর বাঙালি নারীর চরিত্রে অভিনয়ে করে এ গুজব তিনি মানতে পারছেন না। গোল্ড ছবিতে তিনি অক্ষয় কুমারের (ছবিতে তপন দাস) স্ত্রী মনোবীণা দাসের চরিত্রে অভিনয় করেছেন।

মৌনী বলেন, ‘আপনাদের উচিত প্রযোজক রিতেশ সিধওয়ানিকে জিজ্ঞেস করা। বলিউডে আমার অভিষেকে সালমান খানের কোনো ভূমিকা নেই। আমি জানি না, কেন এ সংবাদ ছড়িয়ে পড়ল; অমি বিস্মিত হয়েছি, কেন মানুষ এটা করবে। এটা অবিশ্বাস্য যে, ১০ বছর ধরে অভিনয় করে এবং বাঙালি হয়েও আমি বাঙালি চরিত্রে অভিনয় করতে পারব না? এটা বেদনাদায়ক।’

মৌনী আরো বলেন, মিডিয়ার উচিত অভিনেতা হিসেবে তাঁকে প্রাপ্য মর্যাদা দেওয়া। ‘এটা আমার মুহূর্ত ছিল, কিন্তু তারা আমার কাছ থেকে কেড়ে নিল।’ তিনি শুধু বলেছিলেন, সালমান খান এমন একজন মানুষ, যাঁকে তিনি ভালোবাসেন এবং শ্রদ্ধাও করেন।

মৌনী বলেন, ছোট থেকেই তিনি সালমান খানের ভক্ত। তিনি তাঁর পোস্টার ও ছবি সংগ্রহ করতেন এবং তাঁর নামও নিতে চাইতেন না। তাঁর সঙ্গ বলিউড অভিষেকে কোনো ভূমিকা রাখেনি।

‘আমাকে পরিষ্কার করে বলতে হচ্ছে যে, কোনো ভূমিকায় অভিনয়ের জন্য সালমান খানের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান থেকে আমি একটি ফোনকলও পাইনি।’

ট্যাগ: banglanewspaper মৌনী