banglanewspaper

আসন্ন হজে হাজিদের সেবা দিতে ১ লাখ ৯২ হাজার নারী-পুরুষ কাজ করছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে আগত ২০ লাখের বেশি হাজিকে ১৩৬ ধরনের সেবা দিতে তাদের নিয়োগ করেছে সৌদি সরকার।

মঙ্গলবার সৌদি সরকারের পরিসংখ্যান বিভাগ থেকে প্রকাশিত হজ মৌসুমের পরিসংখ্যান ক্যালেন্ডারে এই তথ্য জানানো হয়েছে। খবর আরব নিউজের।

এবার হজ পালনে বাংলাদেশ থেকেও এক লাখ ২৬ হাজারের বেশি নারী-পুরুষ সৌদি আরব গেছেন।

কর্তৃপক্ষ তাদের নিজস্ব ওয়েবসাইটে জানিয়েছে, হাজিদের ১৩৬ ধরনের সেবা প্রদান করতে এক লাখ ৯২ হাজার ২৫৪ জন পুরুষ ও নারী কাজ করছে। এদের মধ্যে ১ লাখ ৮৯ হাজার ১১৩ জন পুরুষ এবং ৩ হাজার ১৪১ জন নারী। তারা দিনে রাতে সবসময় হাজিদের সেবায় কাজ করছে।

সেখানে আরও জানানো হয়, এবারের হজে ৫৯ হাজার ৭৪১টি বিভিন্ন যান্ত্রিক সেবা দেয়া হচ্ছে। তার মধ্যে সাত হাজার ৯৯৫টি গাড়ি, ১ হাজার ৫৮৩টি মোটরবাইক, ১৩ হাজার ৩৪৯টি ওয়ারলেস ডিভাইস এবং ৩ হাজার ৭৬০টি কম্পিউটার ব্যবহৃত হচ্ছে।

এছাড়া হজে পাবলিক নিরাপত্তা বিভাগের সাধারণ অধিদপ্তর কর্তৃক বিভিন্ন পরিষেবাসমূহ তুলে ধরা হয়েছে। হাজিদের নিরাপত্তা, মক্কা-মদিনাসহ অন্যান্য স্থানগুলোকে কড়া নিরাপত্তাব্যবস্থা ও কার্যকরী ট্রাফিক পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে।

৫২টি পুলিশ স্টেশন, ২৮০টি ট্রাফিক কেন্দ্র এবং ৭৫টি নিরাপত্তাবেষ্টনি গেট স্থাপন করা হয়েছে। এছাড়া পনের হাজারেরও বেশি অতিরিক্ত নিরাপত্তারক্ষীরা কর্মরত রয়েছেন।

প্রতি বছর সারা বিশ্ব থেকে লাখ লাখ মুসলিম সৌদি আরবে হজ পালন করতে যান। এ উপলক্ষে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়ে থাকে সৌদি সরকার। আগামী ১৯ আগস্ট রবিবার থেকে এবারের হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হবে। শেষ হবে ২৪ আগস্ট।

ট্যাগ: হাজি