banglanewspaper

প্রশান্ত কুমার রায়, লালমনিরহাট প্রতিনিধি : প্রচন্ড উষ্ণতায় মানুষ থেকে প্রাণী সবাই হিমেল ছায়ার সন্ধানে ছুটে চলছে। প্রচন্ড রোদ থেকে নিস্কৃতি পেতে পাখিরা আশ্রয় নেয় গাছের মগডালে পত্র-পল্লবের ছায়ায়।

বাগানে গাছের ছায়ায় কুকুর ছানারা আশ্রয় নিলেও একহাত জিহ্বা বের করে গরম যন্ত্রনায় লালা ছেড়ে দিয়ে হাঁপ ছেড়ে বাঁচার চেষ্টা করছে । গরমের নিকট সবাই কাবু হয়ে যখন প্রশান্তির ছায়ায় আশ্রয় খুঁজে তখন শ্রমজীবি মানুষগুলোকে এতটুকু পর্যন্ত টলাতে পারেনা উষ্ণতা।

শ্রমজীবি মানুষ গুলো গরমকে উপেক্ষা করে তাদের কর্মে থাকছে অবিচল। তবে শ্রমজীবিরাও মাঝে মাঝে হার মানছে গরমের নিকটে। মাঝে মাঝে তপ্ত রোদ থেকে বাচতে গাছের ছায়াতে আশ্রয নিচ্ছে।

লালমনিরহাট জেলা জুড়ে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। সরেজমিনে দেখা যায়,মানুষ জন গরমের নিকট নাকাল হয়ে পড়ছে। কয়েক জনের সাথে কথা হলে তারা বলেন,”কি দিন আইলো বাহে বর্ষা কালেও এত গরম,মুই যে একনা ভালে মত কাজ করিম,তা এই মরার গরমের জন্য পাচ্ছুক না”।

প্রচন্ড গরমের ও থেমে নেই মাছ শিকারীরা,হাতে জাল,বালতি,কোদাল,বদনা নিয়ে মাছ ধরতে নেমে পড়ছে। কারন এই সময়টাতে অল্পতে অনেক মাছ পাওয়া যায়।

প্রচন্ড গরমে মাছ মরে পানিতে ভেসে উঠছে। মানুষ জন তীব্র গরম উপেক্ষা করে,মরা মাছ সংগ্রহ করছে। কয়েক জন ব্যাক্তি বলেন,আসুন সকলে মিলে গাছের চারা রোপন করি। তার ফলে গরমের প্রভাব যদি একটু কমে। তারা আরো যোগ করেন,যেভাবে কার্বন ড্রাইঅক্সসাইড (co) বৃদ্ধি পাচ্ছে,তার ফলে আজ এই অবস্থা।

ট্যাগ: banglanewspaper লালমনিরহাট