banglanewspaper

মনির হোসেন জীবন, নিজস্ব প্রতিনিধি : আসন্ন ঈদকে সামনে রেখে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের প্রতিযোগিতায় নেমেছে গণপরিবহনসহ মহাসড়কে চলাচলরত বিভিন্ন পরিবহন। সাধারণ যাত্রীদের জিম্মি করেই আদায় করা হচ্ছে অতিরিক্ত ভাড়া। 

ফলে এবারের ঈদযাত্রায় ঘরমুখী মানুষ ও স্থানীয় যাত্রীরা পড়েছে চরম বিপাকে। একদিকে পোহাতে হচ্ছে ভোগান্তি অপরদিকে পড়তে হচ্ছে আর্থিক ক্ষতির মুখে। 

উত্তরবঙ্গের প্রায় ১৮টি জেলার মানুষের সড়ক পথে যাওয়ার একমাত্র সড়ক হলো নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়ক এবং ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক। মহাসড়কের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টের মধ্যে সাভারের নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের বাইপাইল স্ট্যান্ড এবং চন্দ্রা ত্রিমোড়। আর এ মহাসড়কে চলাচল করে ইতিহাস, রাজধানী, সাভার, ওয়েলকাম, ঠিকানা, লাব্বাইক, পলাশসহ অনেক পরিবহন।

আর এসব পরিবহন ঈদকে সামনে রেখে যাত্রীদের জিম্মি করে আদায় করছে বাড়তি ভাড়া। সিটিং সার্ভিসের নাম করে যাত্রীদের কাছ থেকে হাতিয়ে নিচ্ছে বাড়তি ভাড়া। অথচ সিটিং সার্ভিসের যে সকল সুযোগ-সুবিধার থাকার কথা তার কোনটাই নেই এসব পরিবহনের। লোকাল বাসের মতই হরহামেশা যত্রতত্র যাত্রী উঠা-নামা, যাত্রীদের দাড় করিয়ে নেয়াসহ বিভিন্ন অভিযোগ রয়েছে এসব নামধারী সিটিং সার্ভিসের বিরুদ্ধে। 

নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের জিরানী বাজার থেকে চন্দ্রার বাস ভাড়া ১০ টাকা অথচ যাত্রীদের কাছ থেকে আদায় করা হচ্ছে ২০ টাকা করে। এছাড়া একই স্থান থেকে ভ্যান ভাড়া ২০ টাকা হলেও এখন যাত্রীদের কাছ থেকে নেয়া হচ্ছে ৫০-৭০ টাকা। ঠিক এমনটাই জানালেন টাঙ্গাইলের মির্জাপুরের উদ্দেশ্যে রওনা হওয়া মোঃ বাতেন আলী। 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পরিবহনের এক শ্রমিক জানান, ঈদকে সামনে রেখে অল্প ভাড়া বেশি নেয়া হচ্ছে তবে তা অতিরিক্ত নয়। 

আর এ ব্যাপারে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ভাষ্য, সড়কে যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় কোনভাবেই কাম্য নয়। যদি এ বিষয়ে কেউ অভিযোগ করে তাহলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সেই সাথে ঈদে ঘরমুখী মানুষের যাত্রা নির্বিঘ্ন করতে মহাসড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা নিরলস কাজ করে যাচ্ছে।

ট্যাগ: banglanewspaper সাভার