banglanewspaper

কর্তব্যরত অবস্থায় ক্ষুধার্ত শিশুকে বুকের দুধ খাইয়ে পদন্নোতি পেয়েছেন আর্জেন্টিনার এক মহিলা পুলিশ অফিসার। আর্জেন্টিনার রাজধানী বুয়েনস আইরেস-এর একটি শিশু হাসপাতালের সামনে নিয়মমাফিক টহল দিচ্ছিলেন পুলিশ অফিসার সেলেস্তে জ্যাকেলিন আয়ালা।

হাসপাতালটির  টহল দেওয়ার সময়ই তাঁর নজরে আসে, অপুষ্টিতে ভোগা একটি শিশুকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছে। খিদের জ্বালায় সেই শিশুটি ভীষণ চিৎকার করছে। হাসপাতালের কর্মীদের অনুমতি নিয়ে ক্ষুধার্ত বাচ্চাটিকে দুধ খাওয়াতে শুরু করেন তিনি।

কিছু ক্ষণের মধ্যেই শান্ত হয় শিশুটি। এরপর চিকিৎসার জন্য শিশুটিকে হাসপাতালে নিয়ে যান কর্মীরা।

পুরো বিষয়টি দেখে অবাক হন এক স্থানীয় বাসিন্দা। তিনি ছবি তুলে ঘটনাটি সোশ্যাল মিডিয়ায় তুলে ধরেন। তার পরই  সেলেস্তে জ্যাকেলিনের কীর্তি ছড়িয়ে পড়ে সারা পৃথিবীতে। সাধারণ পুলিশ অফিসার থেকে হয়ে ওঠেন হিরো। কয়েক ঘন্টার মধ্যে এই পোস্ট এক লক্ষ 'শেয়ার' হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়।

জ্যাকেলিন বললেন, 'আমি বেশি কিছু ভাবিই নি। ক্ষুধার্ত, অপরিষ্কার শিশুটিকে দেখে আমার মন খারাপ হয়ে গিয়েছিল। শিশুটির এই অবস্থা হল কী করে, সেটা ভেবে আরও খারাপ লাগছিল। বাচ্চাদের জন্য সবারই একটু সংবেদনশীল হওয়া উচিত।'জানা গিয়েছে, ওই শিশুটি একজন ‘সিঙ্গল মাদার’।

তাঁর ছ’টি সন্তান। ছ’টি সন্তান লালন করার ক্ষমতা তাঁর নেই। সেই কারণেই দীর্ঘদিন অভুক্ত থেকে অসুস্থ হয়ে পড়ে শিশুটি। এই বছরের জুন মাসেও একই ঘটনা ঘটেছিল ভারতের কর্নাটকেও।

সদ্যোজাত এক অনাথ শিশুকে দুধ খাইয়ে শিরোনামে এসেছিলেন বেঙ্গালুরুর এক মহিলা পুলিশকর্মী।

ট্যাগ: Banglanewspaper ক্ষুধার্ত শিশু বুকের দুধ পদোন্নতি