banglanewspaper

ভোগিতে ভোগিতে শেষ হয়েছে সময়
বেড়ে গেছে বহু দেনা।
কিন্তু এখনও হয়নি শেষ
স্বাধীনতার চেতনা।
জানি রবে অক্ষয় সীমাহীন 
এ চেতনার ঘোর ।
আমরা শুধুই হব নি:শেষ
শেষ হয়ে যাবে পাখি ডাকা ভোর।
স্বাধীনতার এ চেতনা 
শুধুই দিয়ে যায় শিক্ষা।
ক্লান্তিকাল বিচ্ছেদের দিনে কারো   
দেয়নি জীবন ভিক্ষা। 
জন্ম হতেই দেখেছি শুধু
এ চেতনার আসর।
গড়তে দেখিনি কারো কখনও
জীবনের কুড়েঘর। 
আবার দেখেছি কেউ করেছে 
নিজের জীবনের বাজারজাত।
তার পিছনেও রয়েছে কিন্তু 
সেই চেতনার হাত।
সারা জীবন ভরে কেউ 
বহু জীবন গড়ে।
নি:স্ব হয়েছে রাতারাতি
সেই চেতনায় পড়ে। 
স্বাধীনতার চেতনার পরশ
ছিল আরো মহৎ।
আহার নিরাপত্তায় ভরিয়ে দিবে
সবার জীবনের পথ।
সেই চেতনায় বিভেদ রবে না
এডাম ডেবিট যিশু।
অনাহার আর নিরক্ষর রবে না
মানবতা আর সহায়হীন শিশু।
কিন্তু হয়নি তা লুটে নিচ্ছে সব
কতিপয় গুন্ডার দল।
দখল করে নিচ্ছে সারা জনপদ
মাথায় দিয়ে চেতনার আঁচল।

ট্যাগ: banglanewspaper স্বাধীনতা