banglanewspaper

বরগুনা প্রতিনিধি: জাতীয় নির্বাচন সামনে রেখে সংগঠনে শৃঙ্খলা ফেরাতে কঠোর অবস্থান নিয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।

অভ্যন্তরীণ কোন্দলে পরস্পরের বিরুদ্ধে বিবাদ না মেটানোয় বরগুনা -১ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট ধীরেন্দ্র দেবনাথ শমভুসহ তিন নেতাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠিয়েছে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটি।

সোমবার (১০ সেপ্টেম্বর) দলীয় সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে দলের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের স্বাক্ষরিত এসব শোকজ নোটিশ কুরিয়ারের মাধ্যমে পাঠানো হয়েছে। তবে শোকজ নোটিশ এখনও হাতে পৌঁছায়নি বলে জানিয়েছেন সংসদ সদস্য।

বরগুনা- ১ আসন থেকে নির্বাচিত ধীরেন্দ্র দেবনাথ শমভু দলীয় ঐক্য, সংহতি, সম্প্রীতি, আনুগত্য ও শৃঙ্খলা বজায় রাখতে তারা যথাযথ দায়িত্ব কর্তব্য পালন করেছেন কিনা, এ বিষয়ে ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে লিখিত জবাব দিতে ওই শোকজ নোটিশে বলা হয়েছে। এছাড়া গত ৬ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলেও উল্লেখ করা হয়েছে ওই নোটিশে।

এছাড়া, দলীয় সংসদ সদস্যকে এলাকায় অবাঞ্ছিত ঘোষণা করার অভিযোগে বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির, সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম সরোয়ার টুকু, ও বরগুনা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেনকে কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

এ বিষয়ে বরগুনা ১ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট ধীরেন্দ্র দেবনাথ শমভু বলেন, কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তক্রমে নোটিশ পাঠানো হলেও এখনো তার হাতে পৌঁছায়নি। নোটিশ পেলে যথাসময়ে তার যৌক্তিক জবাব দেবেন বলে তিনি জানান।

জেলা আওয়ামী লীগ নেতাদের কাছেও এখনো নোটিশ পৌঁছায়নি। জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ জাহাঙ্গীর কবির বলেন, ‘আমরা কেউ এখনো কোনো নোটিশ পাইনি। নোটিশ পাওয়ার পর জবাব লিখিত আকারে কেন্দ্রে পাঠানো হবে’।

বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের শীর্ষ পর্যায়ের বেশীরভাগ নেতারাই বর্তমান সাংসদের বিরুদ্ধে একাট্টা হয়ে সীমাহীন দুর্নীতি, চাকরিতে ঘুষ, পরিবারতান্ত্রিক রাজনীতি প্রতিষ্ঠাকরণসহ ২৪টি অভিযোগ লিখিতভাবে কেন্দ্রে দিয়েছেন। 

এরপরই গত ৪ সেপ্টেম্বর বরগুনা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনেরর মধ্য দিয়ে সংসদ সদস্য ধীরেন্দ্র দেবনাথ শমভুকে এলাকায় অবাঞ্চিত ঘোষণা করা হয়।

ট্যাগ: Banglanewspaper বরগুনা-১ শোকজ