banglanewspaper

ভিয়েতনামের মানুষ কুকুল-বিড়ালের মাংস খেয়ে থাকে।  এবার কুকুরের মাংস না খাওয়ার আহবান জানিয়েছে দেশটির রাজধানী হ্যানয়ের একটি নাগরিক সংগঠন। তারা বলেছেন, কুকুরের মাংস খেলে জলাতঙ্কের মতো রোগ ছড়ানো ছাড়াও শহরটির সুনাম খুন্ণ হতে পারে।

দ্য হ্যানয় পিপলস কমিটি বলছে, সভ্য এবং আধুনিক রাজধানী হিসেবে কুকুরের মাংস খাওয়ার অভ্যাস শহরটিকে কলঙ্কিত করতে পারে। এই মাংস জলাতঙ্ক এবং লেপটোসপাইরোসিসের মতো ক্ষতিকারক রোগ ছড়াবে।


ভিয়েতনামের রাজধানী হ্যানয়ে এখনো এক হাজারের বেশি দোকানে কুকুর এবং বিড়ালের মাংস বিক্রি করা হয়।

এছাড়াও হ্যানয়ের বাসিন্দাদের বিড়ালের মাংস খাওয়া বন্ধ করার আহবান জানিয়েছে। যদিও বিড়ালের সংখ্যা কম তারপরও মাংস পাওয়া যায় শহরটিতে। কমিটি বলছে, অনেক প্রাণীকে নিষ্ঠুরভাবে হত্যা করা হচ্ছে শহরে।

ভিয়েতনামের রাজধানী হ্যানয়ে এখনো ৪ লাখ ৯০ হাজারের মতো কুকুর এবং বিড়াল রয়েছে। যার অধিকাংশই পোষ্য।

ট্যাগ: banglanewspaper কুকুর