banglanewspaper

সিরিয়ার আকাশে গত সোমবার রাতে রাশিয়ার একটি গোয়েন্দা বিমান ভূপাতিত হওয়ার বিষয়ে ইসরাইলের কাছে ব্যাখা চেয়েছে মস্কো।

ইসরাইলি জঙ্গিবিমানের পাইলটদের অপেশাদার কর্মকাণ্ডের কারণে সিরিয় ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে রুশ আইএল-২০ বিমানটি ভূপাতিত হয়ে ১৫ জন রুশ সেনা নিহত হন।

এ সম্পর্কে রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভা বলেছেন, রাশিয়ার বিশেষজ্ঞরা নিশ্চিত করেছেন যে- ইসরাইলি পাইলটদের কর্মকাণ্ডের কারণেই রুশ গোয়েন্দা বিমানটি ভূপাতিত ও ১৫ সেনা নিহত হয়েছে। খবর স্পুটনিকের।

তিনি বলেন, ইসরাইলি পাইলটদের কাণ্ডজ্ঞানহীন কর্মকান্ডের জন্য আমরা ইসরাইলের কাছ থেকে আরো ব্যাখ্যা চাই।

রুশ বিমান ভূপাতিত করার বিষয়ে তথ্য নিয়ে ইসরাইলি বিমান বাহিনীর প্রধান আমিকাম নরকিনের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল বৃহস্পতিবার মস্কো সফর করেছে। এরপর মারিয়া জাখারোভা এসব কথা বলেছেন।

এতে প্রতিয়মান হয়, ইসরাইলি ব্যাখ্যায় সন্তুষ্ট হয়নি মস্কো। একই দিন তেল আবিবে রুশ দূতাবাস বিমান ভূপাতিত হওয়ার ঘটনায় ইসরাইলের নিন্দা করে বলেছে, এটা ছিল দায়িত্বজ্ঞানহীন ও অবন্ধুসুলভ আচরণ।

সোমবার রাতে রাশিয়ার একটি বিমান গোয়েন্দা মিশন থেকে সিরিয়ার হেমেইমিম বিমানঘাঁটিতে ফেরার সময় সিরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে ভূপাতিত হয়। এর আগ মুহূর্তে সিরিয়ার কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ অবস্থানে বিমান থেকে হামলা চালায় ইসরাইল।

জবাবে সিরিয়া ক্ষেপণাস্ত্র হামলা করে কিন্তু রাশিয়ার ওই গোয়েন্দা বিমানকে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করেছে ইসরাইলি পাইলটরা। ফলে সিরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে রুশ বিমানটি বিধ্বস্ত হয়। এ ঘটনার জন্য রাশিয়া শুরু থেকেই ইসরাইলকে দায়ী করে আসছে।

ট্যাগ: ইসরাইল রাশিয়া