banglanewspaper

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন শনিবার জাতীয় সংসদ ভবনের সামনে ব্যক্তিগত গাড়িমুক্ত দিবসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আগামী দুই বছরের মধ্যে সড়কের শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা এবং আগামী সমন্বয় সভায় সড়ক পরিবহন আইনের ধারার আলোকে ঢাকা শহরের ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ন্ত্রণের উদ্যোগ গ্রহণ করার প্রতিশ্রুতি দেন।

এ শহরে ৬ থেকে ৭ শতাংশ ব্যক্তি ব্যক্তিগত গাড়ি ব্যবহার করেন। আর ২২ ভাগ লোক হেঁটে যাতায়াত করে। ব্যক্তিগত গাড়ির ব্যবহার বৃদ্ধিই যানজটের মূল করান। একটা পরিবারের তিন জন সদস্য অথচ তার পাঁচটা গাড়ি, এটা নিয়ন্ত্রণ করা যায় কিনা সে বিষয়ে আমরা কাজ করব।অবশ্যই আমাদের প্রাধান্য দিতে হবে হাঁটা এবং গণপরিবহনকে। কারন এ মাধ্যমেই সবচেয়ে বেশি মানুষ যাতায়াত করেন। এজন্য জনসচেতনতার কোন বিকল্প নেই। কারন জনসচেতনতা পরিবর্তনের শক্তি।  এ শহরের মানুষের জীবনকে নিরাপদ করতে আমাদের সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে।

বিশ্বের অন্যান্য দেশের ন্যায় বাংলাদেশেও ২০০৬ সাল থেকে দিবসটি পালন শুরু হয়েছে। বিগত বছর গুলোর ন্যায় এ বছরও ঢাকা সড়ক পরিবহন সমন্বয় কর্তৃপক্ষ (ডিটিসিএ), ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটিকরপোরেশন এবং সড়ক ও জনপদ বিভাগসহ সরকারিও বেসরকারী ৫১টি সংস্থার সম্মিলিত উদ্যোগে রাষ্ট্রীয় ভাবে বিশ্ব ব্যক্তিগত গাড়ি মুক্ত দিবস পালিত হয়েছে।

শবিবার  মানিক মিয়া এভিনিউ এর উত্তর পাশে (দক্ষিণ প্লাজা) বিশ্ব ব্যক্তিগত গাড়িমুক্ত দিবস উপলক্ষে সড়কে যান্ত্রিক যানবাহন বন্ধ করে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা, সাইকেল শোভাযাত্রা, ঘুড়ি উড়ানো, বিভিন্ন খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে জাতীয় সংগীত এবং পরবর্তীতে বেলুন উড়িয়ে বিশ্ব ব্যক্তিগত গাড়িমুক্ত দিবসের উদ্বোধন করা হয়।

ঢাকা সড়ক পরিবহন সমন্বয় কর্তৃপক্ষ (ডিটিসিএ) এর নির্বাহী পরিচালক খন্দকার রাকিবুর রহমান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আলোচনা পর্বটি সঞ্চালনা করেন ওয়ার্ক ফর এ বেটার বাংলাদেশ ট্রাস্ট এর প্রোগ্রাম ম্যানেজার মারুফ হোসেন।

এ সময় মঞ্চে বিশেষ অতিথি হিসেবে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব মোঃ নজরুল ইসলাম ও উত্তর সিটিকর্পোরেশন এর ভারপ্রাপ্ত মেয়র জামাল মোস্তফা এবং আলোচক হিসেবে নিরাপদ সড়ক চাই এর চেয়ারম্যান ইলিয়াস কাঞ্চন উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া  বিভিন্ন সংস্থার নেতৃবৃন্দ ও শিক্ষার্থীসহ প্রায় এক হাজারের অধিক মানুষ অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহণ করেন।

 

 

ট্যাগ: bdnewshour24 ক্ষিণ সিটি