banglanewspaper

পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর এলাকায় গভীর নিম্নচাপের সৃষ্টি হয়েছে। নিম্নচাপটি পশ্চিম-উত্তরপশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে একই এলাকায় অবস্থান করছে। এ কারণে দেশের সমুদ্রবন্দরগুলোকে চার নম্বর দূরবর্তী সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

মধ্যো বঙ্গোপসাগরে অবস্থিত ঘূর্ণিঝড় তিতলি কার্যত একই এলাকায় অবস্থান করছে এবং আরোও শক্তিশালি হয়ে তীব্র ঘূর্ণিঝড়ে পরিনত হয়েছে।
এটি মংলা সমুদ্র বন্দর হতে ৮৪১ কিলোমিটার দক্ষিন দক্ষিন দক্ষিন– পশ্চিমে অবস্থান করছিলো, এটি আরোও শক্তিশালি হয়ে ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড়ে পরিনত হতে যাচ্ছে।

তীব্র ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের ৪৪ কিলোমিটার এর ভেতরে বাতাসের একটানা গড় গতিবেগ ঘন্টায় ৮৮ কিলোমিটার যা দমকা ও ঝড়ো হাওয়া আকারে ১২৭ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। সাগর ঐস্থানে প্রচন্ড উত্তাল রয়েছে। এবং দেশের উপকূলে সাগর উত্তাল হতে যাচ্ছে।

সকল মাছ ধরা নৌকা ও ট্রলার কে উপকূলে চলে আসার জন্য বলা হচ্ছে। আর ভুলেও কেউ যেনো সমুদ্রে নৌজান নিয়ে না নামে এবং সম্ভাব্য প্রাকৃতিক দূর্যোগ মোকাবেলায় সকলকে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা নিতে বলা হচ্ছে।

দেশের সকল সমুদ্র বন্দরকে ৩ তিন নাম্বার সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হচ্ছে। সতর্ক সংকেত হয়তো পরবর্তী সময়ে আরোও বৃদ্ধি পেতে পারে।

ট্যাগ: bdnewshour24 তিতলি সতর্ক সংকেত ঘূর্ণিঝড়