banglanewspaper

১৯৯৮ সালে একজন বিমান সেবিকাকে যৌন হেনস্থা করেছিলেন অভিজিৎ। ফেসবুকে ‘মিটু’ প্রসঙ্গে পোস্ট করতে গিয়ে এমনই জানিয়েছেন সেই বিমানসেবিকা বোধিসত্ত্বা ইয়ামিওহো। 
প্রাক্তন বিমানসেবিকা পোস্টে লেখেন, একটি নাইট ক্লাবে অভিজিৎ তাঁর সঙ্গে নাচার প্রস্তাব দেন। কিন্তু প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় তাঁর হাতে চেপে ধরেন অভিজিৎ। তার পরে কাছে টেনে এনে কানে জোর করে চুম্বন করার চেষ্টা করেছিলেন তিনি। ক্লাবে লাউড মিউজিক চলছিল। তাই বিমামসেবিকার কানের মধ্যেই চেঁচিয়ে বলেছিলেন, ‘‘নিজেকে কী মনে কর তুমি? এর যথাযোগ্য জবাবের অপেক্ষা কোরো।’’

কিন্তু অভিজিৎ এই সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের কাছে তিনি জানান, ‘‘আমি জীবনে কোনওদিন কোনও ডিস্কো থেকে বা পাবে যাইনি। তিনি পুরোটাই মিথ্যে বলছেন।’’ 

শুধু অভিযোগ অস্বীকারই নয়। যাঁরা ‘মিটু’ প্রসঙ্গে মুখ খুলেছেন, তাঁদের সম্পর্কে অভিজিৎ বলেছেন, ‘‘যাঁরা এই ধরনের অভিযোগ তুলছেন এখন, তাঁরা সবাই কুৎসিত। কেউ মোটা, কেউ রোগা। কেউই এঁরা এতটা গুরুত্বের যোগ্য নন।’’ 

অভিজিৎ ভট্টাচার্য এর আগেও এই ধরনের মন্তব্য করে বিতর্ক তৈরি করেছেন। 

ট্যাগ: bdnewshour24 অভিজিৎ