banglanewspaper

মালয়েশিয়ায় সাজা হিসেবে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে ‘মৃত্যুদণ্ড রদ’ করতে সম্প্রতি সম্মত হয়েছে দেশটির মন্ত্রিসভা। এবার জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস জানিয়েছেন, বিশ্বের ১৭০ দেশ মৃত্যুদণ্ড বাতিল বা বিলুপ্ত করেছে কিংবা এর চর্চা নীতিগতভাবে বন্ধ রেখেছে।

গেল সেপ্টেম্বরে জাতিসংঘ মানবাধিকার কাউন্সিলে পেশ করা এক রিপোর্টে গুতেরেস জানান, মৃত্যুদণ্ড বাতিল করা এই ১৭০ দেশ অপরাধের শাস্তি হিসেবে অন্তত বিগত ১০ বছর ধরে কোনও আসামির মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা থেকে বিরত রয়েছে।

গত ১০ অক্টোবর বিশ্ব মৃত্যুদণ্ডবিরোধী দিবসে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে আসামির মৃত্যুদণ্ডের চর্চা বন্ধ করায় সচেষ্ট দেশগুলোর প্রশংসাও করেছেন তিনি। 

এদিকে গতকাল রবিবার এক যৌথ বিবৃতিতে মৃত্যুদণ্ড বিলুপ্ত করার জন্য বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)। 

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বলছে, বিশ্বের ১৪২টি দেশ এখন আর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করছে না। তারা কোনও আসামির শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ড বিলুপ্ত করেছে। গত ৫ বছরে তাদের হিসেবে অন্তত ৩৩ দেশ একবার করে হলেও মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেছে।

অন্যদিকে বর্তমানে জাতিসংঘের সদস্য রাষ্ট্র ১৯৩টি। সেখান থেকে ১৭০টি দেশ বাদ দিলে বাকি ২৩টি দেশ গত ১০ বছরে কোনও না কোনও সময় একবার হলেও মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেছে। 

প্রকাশিত এক জরিপে দেখা যায়, ২০১৭ সালে বিশ্বের ৫৩টি দেশে ২ হাজার ৫৯১ জনকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে সাজা কার্যকর করা হয়েছে।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের এক প্রতিবেদনে উঠে এসেছে, বিশ্বের ১০৬টি দেশের আইন মৃত্যুদণ্ড কার্যকরকে সমর্থন করে না। ৭টি দেশে যুদ্ধের মতো বিশেষ অবস্থায় ভয়াবহ অপরাধের জন্য মৃত্যুদণ্ড দেয়ার বিধান আছে। ২৯টি দেশের আইনে মৃত্যুদণ্ডের বিধান আছে, কিন্তু এ সত্ত্বেও গত ১০ বছরে এসব দেশ এ ধরনের কোনও চর্চা করেনি। এছাড়া, বিশ্বের ৫৬টি দেশে মৃত্যুদণ্ডের বিধান বহাল আছে। যারা বিগত বছরগুলোতে কোনও মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেনি। তবে ভবিষ্যতেও যে করবে না সরকারিভাবে তেমন কোনও ঘোষণাও দেয়নি।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সাল থেকে মৃত্যুদণ্ডপ্রথা বিলোপ করেছে গিনি ও মঙ্গোলিয়া। চলতি বছরের শুরুতে মৃত্যুদণ্ড বন্ধের ঘোষণা দেয় গাম্বিয়া। সাব সাহারা আফ্রিকান অঞ্চলে ২০১৭ সালের শেষ দিকে ২০টির মতো দেশ মৃত্যুদণ্ড বিলুপ্ত করে। অন্যদিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে গেল বছর সব মিলিয়ে ২৩ জনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হলেও চলতি অক্টোবর মাস থেকে এ রীতি বাতিল করছে ওয়াশিংটন। 

ট্যাগ: bdnewshour24 ফাসি