banglanewspaper

★★★★★★★★★★★★★

বৃষ্টি তোমায় দেখতে, কি যে অপূর্ব লাগে! মেঘাচ্ছন্ন আকাশ দেখে, মনে কত প্রশ্ন জাগে?
 কত সুন্দর করে তুমি, বিলিয়ে দিলে;
তোমার জমানো কষ্ট, পৃথিবীর মাঝে!

বিন্দু বিন্দু জলকণা, তিলে তিলে ধারণ করে;
রাখতে পারোনা তারে, বুকে আকড়ে  ধরে।
তোমার কষ্টে মেঘ ভেদে, জ্বলে বিজলি বাতি;
তোমার ব্যথায় গর্জে, জগত বিধাতায় নিজে। 

অঝোরে তুমি ঝরলে শুধু, রিমঝিম শব্দ করে। 
বুঝিতে পারিনা তাহা আজও, কষ্ট তোমার কিসে?
ছন্দে নৃত্যে আত্মহারা হয়ে, বিসর্জন দাও জলেরে।
তোমার কষ্ট করেছ বিলিন, বিলিয়ে দিয়ে জগতে। 
এত অভিমান জমা হলো কেন, তোমার বুকেতে হায়!
ভাঙ্গলো তাহা বায়ু ভেদে তীব্র বর্জ্রপাতে তাই!

অঝোরে বর্ষন,জলের বিসর্জন, হালকা কর নিজেরে।
সব কষ্ট বিলিন হয় তোমার, বিলিয়ে দিয়ে জগতে। 
আকাশের বুক থেকে, তোমায় ঝেড়ে ফেলে ,
বন্যা হয়ে দুঃখ ছড়ায়, কষ্ট বাড়ায়  ভুবনেতে। 
 প্লাবন, তুমি বড়ই নিঠুর!
রাখো না, অবশিষ্ট কোন কিছুর!
রাক্ষুস হয়ে এসে যেন, কেড়ে নাও শেষ আশ্রয় টুকু। 
তোমার কষ্টের ভাগ, দিলে যখন পৃথিবীতে ছিটিয়ে।  
 নিঃস্ব হলাম তাইতো আজি, জলাঞ্জলি দিয়ে সব বন্যাতে।

ট্যাগ: bdnewshour24 কবিতা