banglanewspaper

ক্ষুদ্র অনলাইন উদ্যোক্তাদের আর্থিক সহায়তার জন্য রাজধানী‌তে বস‌ছে ই-‌লোন মেলা। এজন্য শপআপ এবং ইক্যাবের ম‌ধ্যে চু‌ক্তি হ‌য়ে‌ছে। ১৭ ন‌ভেম্বর থে‌কে ধানমন্ডির মাইডাস সেন্টারে হবে 'ই-লোন' মেলা

অনলাইন বিজনেসে ভালো করলেও অনেক ক্ষেত্রেই ব্যাংক থেকে বিনিয়োগের সুযোগ পায় না অনলাইন উদ্যোগগুলো। অনলাইন উদ্যোগদের ব্যবসার প্রসারের জন্য এই বছরের শুরুতে শপআপ লঞ্চ করে শপআপ ই-লোন অ্যাপ্লিকেশন যা দিয়ে উদ্যোক্তারা ঘরে বসেই তাদের সমস্ত তথ্য সাবমিট করতে পারে।

অ্যাপ্লিকেশনের সব তথ্য ঠিক মতো দিলে এবং তথ্য যাচাই করে অনুমোদন পেলে ৭ দিনের মধ্যেই ই-লোন এর ব্যাংকিং পার্টনার ব্র্যাকের মাধ্যমে লোন এর টাকা পেয়ে যাবেন উদ্যোক্তারা। । ইতিমধ্যেই ২৫০ এর অধিক উদ্যোক্তারা ই-লোন দিয়ে উপকৃত হয়েছে।

ই-ক্যাবের সঙ্গে শপআপের চুক্তির কারণে এখন ই-ক্যাব সদস্যরা এক্সপ্রেস লোন প্রসেসিংয়ের আওতায় আসবে। এ ছাড়াও, ই-ক্যাব সদস্যরা পাচ্ছে আরো বেশি পরিমান এবং সময়ের সুবিধা।

আগামী ১৭ নভেম্বর পর্যন্ত শপআপ এবং ইক্যাব যৌথভাবে 'ফাইন্যান্সিং উইক' ঘোষণা দিয়েছে। 'ফাইন্যান্সিং উইক' এ ই-ক্যাবের গ্রুপে আর্থিক স্বাবলম্বীতা নিয়ে আলোচনা হবে এবং ফাইন্যান্সিং উইকের শেষ দুইদিনে ধানমন্ডির মাইডাস সেন্টারে হবে 'ই-লোন' মেলা।

এই মেলায় বেসিক কিছু ডকুমেন্ট নিয়ে গিয়ে অনায়াসেই উদ্যোক্তারা ই-লোনের জন্য অ্যাপ্লাই করতে পারবেন। মেলায় আর্থিক স্বাবলম্বিতা সম্পর্কে বেশ কিছু সেশন থাকবে। যেখানে বক্তব্য দেবে বাংলাদেশের আর্থিক সেক্টরের বিশেষ ব্যক্তিরা।

ই-লোনের অ্যাপ্লিকেশন করতে চাইলে যেতে হবে এই লিংকে https://shopup.com.bd/eloan/

ট্যাগ: bdnewshour24 লোন