banglanewspaper

ডেস্ক রিপোর্ট: বাংলাদেশের বাজারে দেড় লাখ টাকা দামের বিলাসবহুল বাই-সাইকেল আনলো বিএমডব্লিউ। জার্মানির বিলাসবহুল গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এই প্রথম বাংলাদেশে বাই-সাইকেল বিক্রি শুরু করলো। সাইকেলটির মডেল এম ক্রুজ বাইক। 

এটা মূলত বিএমডব্লিউর ডিজাইন করা বাই-সাইকেল। এটা তৈরি হয়েছে পর্তুগালে। এতে জাপানির বাই-সাইকেল ইকুইপমেন্টে নির্মাতা প্রতিষ্ঠান শিমানোর গিয়ার ব্যবহার করা হয়েছে। 

এর দাম ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা। বেশ কয়েকটি ইউনিটি বাংলাদেশে এনেছিল বিএমডব্লিউর দেশীয় পরিবেশক এক্সিকিউটিস মোটরস। প্রায় সবগুলোই বিক্রি হয়ে গেছে। এর মধ্যে একটি বাই-সাইকেল বিক্রি ও প্রদর্শনের জন্য রাখা হয়েছে। কেউ চাইলে আমরা এনে দিতে পারবো। 

আমাদের কাছে এখন সাদা রঙের একটি বাইক আছে। গ্রে কালারেরও একটি মডেল আন্তর্জাতিক বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। 

অন্যান্য বাইকের চেয়ে বিএমডব্লিউ বাইকের বিশেষত্ব জানতে চাইলে এক্সিকিউটিভ মোটরসের বিক্রিয় বিভাগের ব্যবস্থাপক এম.এ. মুত্তাহিত তুর্জ বলেন, ‘অ্যালুমিনিয়াম ফ্রেমের তৈরি এম ক্রুজ বাইকটি হালকা-পাতলা। এটি সম্পূর্ণ বিএমডব্লিউর নিজস্ব ডিজাইনে তৈরি। এতে অ্যারো ডায়নামিক ডিজাইন ব্যবহার করা হয়েছে। বাইকটিতে টিউবলেস টায়ার ব্যবহার করা হয়েছে।’

অনন্য ডিজাইনের এই বাইকের বিএমডব্লিউর লোগো ব্যবহার করা হয়েছে। এর পেছনে চাকায় রয়েছে ১০ স্পিড ক্যাসেট টাইপ ফ্রি হুইল। সামনের গিয়ারে আছে থ্রি স্পিড ক্যাসেট। উভয় চাকায় রয়েছে শিমানোর বিআর-এম৩৯৫ মডেলের ১৮০ মিলিমিটার মেকানিক্যাল ডিস্ক ব্রেক। যা 
টিউবলেস টায়ার আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ড কন্টিনেন্টালের তৈরি। টায়ারের গায়ে রিফ্লেক্টর রয়েছে। 

অ্যালুমিনিয়ার অ্যালয় রিমে বেশ চিকন। ফলে বাইকটি ওজনে হালকা হয়েছে। রিমের সঙ্গে রয়েছে স্পোক। সাইকেলটির সিট চালকের উচ্চতা অনুযায়ী অ্যাডজাস্ট করে নেয়া যাবে। 

ঝাঁকুনি প্রতিরোধে সামনে চাকায় আছে স্ক্রি লোডেড টেলিস্কোপিক ফর্ক। এটি শান্তুরের তৈরি। মডেল এক্সসিটি।  পথচারীদের সতর্ক করার জন্য রয়েছে সুরেলা ঘণ্টা। বাইকটির ওয়্যারিং চেসিসির অভ্যন্তরে স্থাপন করা হয়েছে। ফলে এটি গিয়ার কেবল এবং শিফটার কেবলগুলো বাইরে থেকে দেখা যায় না। এতে করে বাইকটি ডিজাইনে বৈচিত্র্য এসেছে। 

বিএমডব্লিউর এই বাইকের গিয়ার শিফটিংয়ের জন্য শিমানোর সুইচ গিয়ার রয়েছে। এর হ্যান্ডেলবার সম্পূর্ণ অ্যালুমিনিয়ামের কার্ভড ডিজাইনের। দু চাকায়ই অ্যালুমিনিয়াম হাব ব্যবহার করা হয়েছে। এই হাব দুটি সহজেই নিজে নিজেই খোলা যাবে। এজন্য রয়েছে বিশেষ কি। এতে ২৬ ইঞ্চি উচ্চতার বাইকটিতে সামনের ও পেছনের চাকায় কোনো মার্ড গার্ড নেই। যদিও চাইলে মার্ড গার্ড লাগিয়ে নেয়া যাবে। লাগানো যাবে কেরিয়ারও।

ট্যাগ: bdnewshour24 বিএমডব্লিউ বাই-সাইকেল