banglanewspaper

টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীতে এক এসএসসি পরীক্ষার্থীকে গণধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। পরীক্ষার সাজেশন দেয়ার প্রলোভনে ধনবাড়ী নওয়াববাড়ী লিচু বাগান ছাত্রাবাসের ১১ শিক্ষার্থী ওই ছাত্রীকে গণধর্ষণ করে বলে মামলায় অভিযোগ আনা হয়েছে।

বুধবার সন্ধ্যায় গণধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে ১১ জনের বিরুদ্ধে ধনবাড়ী থানায় মামলাটি করেন। এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

ধনবাড়ী থানা পুলিশ ও ভুক্তভোগীর পরিবার জানান, গত ২৭ অক্টোবর মোবাইলে ওই শিক্ষার্থীকে পরীক্ষার সাজেশন দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে ডেকে নেয় ধনবাড়ী নওয়াববাড়ী লিচু বাগান ছাত্রাবাসের ওই শিক্ষার্থীরা। ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর পর ওই শিক্ষার্থীকে আটকে রেখে পালাক্রমে ধর্ষণ করে তারা।

পরদিন সকালে মেয়েটিকে ধর্ষণের এ ঘটনা কাউকে না বলার হুমকি দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়। এমনকি এ ঘটনা কাউকে জানালে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ ধর্ষণের দৃশ্য ছেড়ে দেয়ারও হুমকি দেয় তারা। পরে মেয়েটি বাসায় গিয়ে বাবা-মায়ের কাছে পুরো ঘটনাটি খুলে বলে।

পরবর্তীতে ওই আসামিরা মোটা অঙ্কের টাকার বিনিময়ে স্থানীয় প্রভাবশালীদের দিয়েও ধর্ষণের ঘটনা ধামাচাপা দিতে ব্যর্থ হয়। অবশেষে বুধবার ভুক্তভোগীর বাবা থানায় ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

এদের মধ্যে ৭ জন ধনবাড়ী সরকারি নওয়াব ইনস্টিটিউশন উচ্চ বিদ্যালয় ও ৩ জন ধনবাড়ী কলেজিয়েট মডেল উচ্চ বিদ্যালয় এবং ১ জন ধনবাড়ী সরকারি কলেজের শিক্ষার্থী বলেও জানায় পুলিশ। তবে গ্রেফতার স্বার্থে ওই শিক্ষার্থীদের পরিচয় জানাতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে থানা পুলিশ।

ধনবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মজিবর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘটনাস্থল থেকে আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। এছাড়াও ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য মেয়েটিকে টাঙ্গাইল ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ট্যাগ: bdnewshour24 ধর্ষণ