banglanewspaper

এই সময়ে ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী আশনা হাবিব ভাবনা। নিয়মিতই কাজ করছেন। কিন্তু তার উপার্জিত অর্থ তিনি জমিয়ে রাখছেন। কিন্তু কেন? কাদের জন্য? কারণটা জানার পর আরও একটু অবাক হতে হয়। 

ঢাকা আন্তর্জাতিক সাহিত্য উৎসবে যোগ দিতে বৃহস্পতিবার বাংলা একাডেমিতে আসেন ভাবনা। এসময় তার টাকা জমানোর কারণটাও জানান। 

ভাবনা বলেন, ‘মিরপুর থেকে এলাম। ময়ূরপঙ্খী নামে একটা স্বেচ্ছাসেবক সংগঠনের শিশুদের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলাম। সংগঠনটি গৃহপরিচারিকাদের শিশুদের কল‍্যাণে কাজ করছে।’ 

এইসব শিশুদের ব্যাপারে তিনি আরও বলেন, ‘আমি দেখেছি, অনেকের বাবা নেই, মা কাজ করেন। আবার অনেকের বাবা কাজ করেন না। ওই শিশুদের সঙ্গে সময় কাটাতে বেশ লাগল। ওদের অনেকে বড় হয়ে পুলিশ হতে চায়। চার বছরের একটা শিশু বলল, সে নায়িকা হতে চায়।’

‘মান্টো’ ছবিটি দেখতেই বৃহস্পতিবার সকালে বাংলা একাডেমিতে আসা হয়েছিল ভাবনার। তবে আসার ইচ্ছে আছে প্রতিদিন। যোগ দেবেন পছন্দসই অধিবেশনেও। 

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ভাবনা বেশ কিছু স্বেচ্ছাসেবক সংগঠনকে সাধ্যমতো সহযোগিতা করেন। সে জন‍্যই তাকে টাকা জমাতে হচ্ছে। 

কারণ আরও আছে। সামনেই ভাবনার জন্মদিন। জন্মদিনের আগে একটা বড় খরচ নিশ্চয়ই আছে। 

ভাবনা বলেন, ‘একটা স্বল্পদৈর্ঘ্য ছবির চিত্রনাট্য লিখেছি। শিক্ষণীয় একটা গল্প। এর গল্পটা এমন, কেউ হয়তো প্রযোজনা করতে রাজিও হবে না। তাই নিজেই প্রযোজনা করবো ভেবেছি।’

ভাবনার ইচ্ছে, তার প্রযোজিত প্রথম স্বল্পদৈর্ঘ্য ছবিতে কলকাতার অভিনেতা প্রসেনজিৎ কাজ করুন। যদি ভাবনা নিজেই বলেছেন, ‘তিনি তো স্বল্পদৈর্ঘ্য ছবিতে কাজ করেন না।’

ট্যাগ: bdnewshour24 ভাবনা