banglanewspaper

অল্পতেই রেগে যাই আমরা। ‘রেগে গেলেন তো হেরে গেলেন’, দৈনন্দিন জীবনে এভাবেই আমরা হেরে যাই। অথচ কিছু বিষয় মাথায় রাখলে দমন করতে পারবেন এই রাগ। চলুন জেনে নিই রাগ কমানোর ৭ কৌশল-

 

থামুন

অনেক বিষয় আসবে যা আপনাকে করবে রাগান্বিত। তবে সেসব বিষয়ের জন্য প্রস্তুত রাখুন একটি শব্দ ‘থামুন’। যখনই কোনও বিষয় আপনার ভালো লাগবে না কিংবা আপনি বোঝাতে পারবেন না তখন থেমে যান।

 

সমাধান করুন

আপনার রাগ হওয়ার যদি কারণ থাকে তবে তার সমাধানও থাকবে। এজন্য সমাধান খুঁজে বের করে রাগ পরিহার করুন। আপনি বা আমি কেউই বেশিদিন পৃথিবীতে বেঁচে থাকবো না। তাই ক্ষণিকের এ যাত্রায় রেগে গিয়ে সময় নষ্ট করে লাভ কী? চেষ্টা করুন দ্রুত এর সমাধান করতে।

 

মনোযোগ অন্যদিকে নিন

মনোযোগ অনেক বড় আরেকটি ব্যাপার। যেসব বিষয় নিয়ে আপনি রেগে যান সেগুলো থেকে মনোযোগ সরিয়ে নিন। এমন কিছু করুন যা আপনার ভালো লাগে। এক্ষেত্রে প্রিয়জনের সাথে কথা বলতে পারেন, মুভি দেখতে পারেন বা আইসক্রিম খেতে পারেন। দেখবেন রাগ কমে যাবে।

 

ক্ষমা করুন

মানুষ সব সময়ই কিছু না কিছু ভুল করে। তাই বলে সব ভুলের জন্য রেগে যাওয়া মোটেও বুদ্ধিমানের কাজ না। যে ভুল করেছে, তার প্রতি রেগে না গিয়ে ক্ষমা করে দিন। দেখবেন তখন না হলেও পরবর্তীতে আপনার ভালো লাগবে।

 

পরিস্থিতি

সবার পরিস্থিতি সব সময় এক রকম হয় না। আজ আপনি যার ওপর রেগে আছেন, কাল হয়তো তার জায়গায় আপনি থাকবেন। তাই রাগ উঠলে পরিস্থিতিটি একটু বুঝে নিন। কেউ আপনাকে ইচ্ছে করে রাগিয়ে তুলবে না। এজন্য পরিস্থিতির কথা ভেবে দেখুন। দেখবেন আপনার রাগ কমে যাবে এবং আপনি বিষয়টি দ্রুত বুঝে যাবেন।

 

স্থির থাকুন

আমরা যখন স্থির থাকতে পারি না তখন যেকোনও বিষয় নিয়েই আমরা রেগে যাই। তবে রাগ ওঠার জন্য পারিপার্শ্বিক অবস্থার চেয়ে বেশি দায়ী নিজেরা। কেননা, তখন মানসিক অস্থিরতার কারণে সবকিছু ভুল মনে হয়। ফলে রেগে যাই। এজন্য আমাদের উচিত স্থির থাকা।

 

যোগ-ব্যায়াম

যদি রাগ আপনার নিত্যসঙ্গী হয় এবং যদি আপনি কিছুতেই তা কমিয়ে আনতে না পারেন তাহলে যোগ-ব্যায়াম করুন। দেখবেন কিছুদিনের মধ্যেই আপনার আচরণে পরিবর্তন আসবে এবং আপনি রাগ কমাতে পারছেন।

ট্যাগ: bdnewshour24 রাগ