banglanewspaper

বিচারিক আদালতে দুই বছরের বেশি সাজা হলে আপিল বিচারাধীন থাকা অবস্থায় কোনো ব্যক্তি নির্বাচনে অংশ করতে পারবেন না বলে জানিয়েছেন হাইকোর্ট। তবে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ সাজা স্থগিত ও জামিন দিলে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পারবেন।

মঙ্গলবার (২৭ নভেম্বর) দুপুরে হাইকোর্টের বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ পর্যেবেক্ষণে একথা বলেন।

বিএনপির পাঁচ নেতার দণ্ড (কনভিকশন অ্যান্ড সেন্টেন্স) স্থগিত চেয়ে করা আবেদন খারিজ করে আদালত এ পর্যবেক্ষণ দেন।

আসামি পক্ষের আইনজীবী ব্যারিস্টার খায়রুল আলম চৌধুরী বলেন, আসামিদের পক্ষে ফৌজদারি কার্যবিধির ৪২৬ ধারায় দণ্ড স্থগিত চেয়ে আবেদন করেছিলাম। কিন্তু আদালত বলেছেন, যে ধারায় (ফৌজদারী কার্যবিধির ৪২৬ ধারা) আবেদনগুলো করা হয়েছে সে ধারায় সাজা স্থগিতের কোনও বিধান নেই।

খায়রুল আলম চৌধুরী আরও বলেন, সাজা স্থগিত করে নির্বাচনে অংশ নেওয়ার বেশ কিছু নজির আমরা আদালতকে দেখিয়েছি। কিন্তু সেই নজিরগুলো যুক্তিযুক্তভাবে আদালত গ্রহণ করেননি বলে আমরা মনে করছি। তাই এই আদেশের বিরুদ্ধে আমরা আপিলে যাবো।

ট্যাগ: bdnewshour24 সাজা হাইকোর্ট