banglanewspaper

হৃদরোগের অন্যতম ঝুঁকি ট্রান্সফ্যাট সম্পর্কে জনসচেতনতা তৈরি করতে কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (২৬ নভেম্বর) রাজধানীর একটি হোটেলে দিনব্যাপী এই কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। গণমাধ্যমকর্মীদের সম্পৃক্ত করার উদ্দেশ্যে এই কর্মশালার আয়োজন করে ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ।

কর্মশালায় বক্তারা বলেন, হৃদরোগের অন্যতম ঝুঁকি ট্রান্সফ্যাট। তাই এ বিষয়ে জনসচেতনতা তৈরি করা জরুরি। কর্মশালায় ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশের এপিডেমিওলজি অ্যান্ড রিসার্চ বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. সোহেল রেজা চৌধুরী মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।

এ সময় তিনি দেশে হৃদরোগের সামগ্রিক পরিস্থিতি তুলে ধরেন। এরপর পাওয়ার পয়েন্টে হৃদরোগের ঝুঁকি হিসেবে ট্রান্সফ্যাট সম্পর্কে বিস্তারিত ব্যাখ্যা করেন পুষ্টিবিদ আবু আহমেদ শামীম। তিনি বলেন, ফ্যাক্টরিতে উৎপাদিত খাদ্য যেমন, বিস্কুট, কেক, পাউরুটি এসব খাদ্যে ট্রান্সফ্যাট পাওয়া যায়।

বিজ্ঞানীরা প্যাকেটজাত খাদ্য, তরল, চর্বিযুক্ত খাবারে ট্রান্সফ্যাটের উপস্থিতি পেয়েছেন। উন্নত দেশে খাবারে ট্রান্সফ্যাট কমানোর জন্য উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। শুধু ট্রান্সফ্যাট গ্রহণের কারণে বছরে পাঁচ লাখ মানুষের মৃত্যু হচ্ছে। ট্রান্সফ্যাট ও হৃদরোগ নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশিক্ষণ কর্মশালাটি পরিচালনা করেন গ্লোবাল হেলথ অ্যাডভোকেসি ইনকিউবিটরের কমিউনিকেশন বিভাগের অ্যাসোসিয়েট ডিরেক্টর রোলফ রোজেনক্রান্জ।

ক্যাম্পেইন ফর টোব্যাকো ফ্রি কিডসের (সিটিএফকে) সহায়তায় কর্মশালাটি আয়োজন করা হয়। কর্মশালায় মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের যুগ্ম সচিব মো. মোস্তাফিজুর রহমান, স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত সচিব মোহাম্মদ রুহুল কুদ্দুস, স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের যুগ্ম সচিব মো. রুহুল আমিন তালুকদার, সিটিএফকের বাংলাদেশের প্রধান পরামর্শক ড. শরিফুল আলম ও অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ট্যাগ: bdnewshour24 ট্রান্সফ্যাট