banglanewspaper

একাদশ জাতীয় নির্বাচনের পোস্টার ছেয়ে আছে রাজধানী জুড়ে। নির্বাচনের পর পরও এসব ব্যানার ফেস্টুন থেকে যাওয়ায় নষ্ট হচ্ছে রাজধানীর মৌলিক সৌন্দর্য্য। তাই নগরীর সৌর্ন্দয্য ফেরাতে আজ থেকে মাঠে নামছে ঢাকার উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন।

রাজধানীতে ঘুরে দেখা গেছে, অলি-গলি থেকে শুরু করে ফুট ওভারব্রিজ, বিদ্যুতের খুটি, বাসা-বাড়ির দেয়ালসহ সবখানেই ছেয়ে আছে পোস্টার আর ব্যানারে।

যাত্রাবাড়ী থাকেন হাবিবুর রহমান। তিনি বেসরকারি চাকরি করেন। তিনি বলেন, ‘নির্বাচন তো শেষ কিন্তু পুরো রাজধানী জুড়ে এখনও রয়ে গেছে নির্বাচনী পোস্টার-ব্যানার।’ এ অবস্থান রাজধানীর সৌন্দর্য্য নষ্ট হচ্ছে বলে তিনি মনে করেন। 

তিনি বলেন, ‘সিটি করপোরেশনের উচিত এগুলো অপসারণ করে শহরের স্বাভাবিক সৌন্দর্য্য ফিরিয়ে আনা।

তবে এসব পোস্টার অপসারণে বসে নেই সিটি করপোরেশনও।

সকালে রাজধানীর বাড্ডার বিভিন্ন এলাকা সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা পোস্টার অপসারণের কাজে নেমেছে। অলি-গলির ভেতরের এসব পোস্টার অপসারণ করছেন তারা।

এসব পোস্টার অপসারণের কাজে অংশ নেয়া ঢাকা দক্ষিন সিটি করপোরেশনের এক পরিচ্ছন্নতাকর্মী বলেন, ‘ডিএনসিসি এলাকা পরিচ্ছন্নতার লক্ষ্যেই ডিএনসিসির নির্দেশ ক্রমেই আমারা পোস্টার অপসারণের কাজ শুরু করেছি।’

অন্যদিকে এসব প্রচারণার ব্যানার-ফেস্টুন অপসারণের কাজ বেলা ১১টার পর আনুষ্ঠিকভাবে শুরু করার কথা ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের।

এ বিষয়ে দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের অতিরিক্ত বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা মিল্লাতুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা প্রতিদিনই বিলবোর্ড, ব্যানার, ফেস্টুন অপসারণ করছি। তবে নির্বাচন উপলক্ষে রাজধানীতে যেসব পোস্টার-ব্যানার লাগানো হয়েছে সেগুলো অপসারণে আজ থেকে দক্ষিণ সিটির ৫৭টি এলাকায় একযোগে কাজ শুরু হচ্ছে।’

ট্যাগ: bdnewshour24 পোস্টার