banglanewspaper

জয়ের ছন্দে উড়তে থাকা পিএসজি বড় ধাক্কা খেল ফরাসি লিগ কাপের কোয়ার্টার ফাইনালে। নিজেদের মাঠে গুইনগাম্পের কাছে হেরে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিল ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা।

বুধবার ম্যাচটিতে ২-১ গোলে হেরেছে প্যারিস সেন্ট জার্মেই। এর আগে গত পাঁচ বছর ধরে লিগটির শিরোপা জিতেছে পিএসজি। কিন্তু গত পাঁচ বছরের সফলতা এবার আর ধরে রাখতে পারলেন না নেইমাররা। মৌসুমে কোনো ম্যাচে না হারা পিএসজি হেরে বসেছে গুইনগাম্পের কাছে।

আর পাঁচবারের চ্যাম্পিয়নদের হারিয়ে প্রতিযোগিতার সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছে পয়েন্ট টেবিলের তলানি থাকা দলটি। গুইনগাম্প ছাড়াও সেমির টিকিট নিশ্চিত করেছে মোনাকো, বোর্দোয়া ও স্ট্রাসবোগ। 

পিএসজির মাঠে বেশ আক্রমণাত¦ক ভাবেই শুরু করে গুইনগ্যাম্প। দুই পক্ষের দুর্দান্ত লড়াইয়ে প্রথমার্ধ শেষ হয় গোলশূন্যতে। বিরতির পর ৬২তম মিনিটে গোলের দেখা পায় পিএসজি। বেলজিয়ামের ডিফেন্ডার তমা মুনিয়ের কর্নারে হেডে বল ঠিকানায় পাঠান ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড নেইমার।

এগিয়ে থাকা পিএসজি ম্যাচের শেষের দিকে গোল খেয়ে বসে। পিএসজির ডি-বক্সে ফরাসি মিডফিল্ডার মাঁকিস কোকো ফাউলের শিকার হলে ভিএআরের সাহায্য নিয়ে পেনাল্টি দিয়েছিলেন রেফারি। সেই পেনাল্টিতে ৮১তম মিনিটে কঙ্গোর মিডফিল্ডার ইয়েনির স্পট কিকে সমতায় ফেরে অতিথিরা।

এরপর যোগ করা সময়ে আবারও পেনাল্টি পেয়ে বসে গুইনগাম্প। মাঁকিস চুরাম ডি-বক্সে ফাউলের শিকার হলে পেনাল্টিটি পায় তারা। সুযোগ হাতছাড়া না করে স্পট কিকে নিজেই জয় নিশ্চিত করেন চুরাম। এর মাঝে ডি-বক্সে মার্কো ভিরাত্তি ফাউলের শিকার হলে পিএসজিকে পেনাল্টি দেননি রেফারি। যার প্রতিবাদ করতে গিয়ে হলুদ কার্ড দেখতে হয় স্বাগতিক দুই তারকা নেইমার এবং এদিনসন কাভানি।

ট্যাগ: bdnewshour24 ফরাসি লিগ নেইমার