banglanewspaper

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) উপনির্বাচন করতে আর কোনো বাধা নেই বলে আদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। এই বিষয়ে স্থগিতাদেশ ও রিট খারিজ করে দিয়ে বুধবার (১৬ জানুয়ারি) বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুরের দ্বৈত বৈঞ্চ এ আদেশ দেন।

তফসিল ঘোষণার পর গত বছরের ১৭ জানুয়ারি ডিএনসিসি নির্বাচনের তফসিলের কার্যকারিতা ছয় মাসের জন্য স্থগিত করেন হাইকোর্ট। পরবর্তীতে আরও ছয় মাসের জন্য নির্বাচন কার্যক্রম স্থগিত করেন আদালত।

আনিসুল হকের মৃত্যুতে ডিএনসিসির মেয়র পদটি শূন্য হয়। আইন অনুযায়ী ইসি ২০১৮ সালের ৯ জানুয়ারি এই পদে উপনির্বাচন এবং ডিএনসিসিতে নতুন যুক্ত ১৮টি ওয়ার্ডে সাধারণ নির্বাচন এবং দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে যুক্ত হওয়া ১৮টি ওয়ার্ডের নির্বাচনের তফসিল দিয়েছিল। ওই বছরের ২৬ ফেব্রুয়ারি ভোট হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু আলাদা রিট মামলার পরিপ্রেক্ষিতে আদালত ১৭ জানুয়ারি ডিএনসিসি নির্বাচনের তফসিলের কার্যকারিতা স্থগিত করেন। আলাদা একটি রিটের পরিপ্রেক্ষিতে পরদিন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ১৮ ওয়ার্ডের নির্বাচনও স্থগিত করেন আদালত।

২০১৭ সালের ৩০ নভেম্বর লন্ডনে চিকিৎসাধীন মারা যান ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হক। যথানিয়মে এর একদিন পর ঢাকা উত্তরের মেয়র পদটি শূন্য ঘোষণা করে সরকার। স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) আইন অনুযায়ী শূন্য হওয়া পদে ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন আয়োজনের বাধ্যবাধকতা ছিল। তাই ২০১৮ সালের ৯ জানুয়ারি তফসিল ঘোষণা করেছিল ইসি।

আলোচিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে এ নির্বাচন আয়োজনে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কার্যকর উদ্যোগ দৃশ্যমান দেখা যায়নি। ফলে আলোর মুখ দেখেনি দেশের অন্যতম এলাকার এই নির্বাচন।

ট্যাগ: bdnewshour24 ঢাকা উত্তর সিটি নির্বাচন হাইকোর্ট