banglanewspaper

আলফাজ সরকার আকাশ, শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধিঃ গাজীপুর শ্রীপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কের সর্বশেষ পুরুষ জিরাফটিও মারা যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে । মঙ্গলবার রাতের কোনো এক সময় ওই জিরাফটির মৃত্যু হয়েছে বলে জানায় পার্ক কর্তৃপক্ষ।

জানা যায়, বুধবার সকালে আফ্রিকান সাফারিতে গিয়ে জিরাফটি মৃত অবস্থা পড়ে থাকতে দেখে কর্মচারীরা। তবে কি কারনে জিরাফটি মারা গেছে তা জানা যায়নি।

পার্ক কর্তৃপক্ষ জানায়, ২০১৩ ও ২০১৫ সালে কয়েক দফায় ১২টি জিরাফ আমদানি করা হয় দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে। এর মধ্যে ৪ পুরুষ ও ৮টি নারী জিরাফ ছিল। উপযুক্ত পরিবেশ পেয়ে পার্কে ৪টি জিরাফ বাচ্চার জন্ম হয়। এর মধ্যে ৩টিই ছিল নারী ও একটি ছিল পুরুষ শাবক। গত বছরের শেষের দিকে পুরুষ জিরাফ শাবকটি মারা যায়। পার্কে এখন অপ্রাপ্ত বয়ষ্ক তিনটি নারী জিরাফসহ মোট ৭টি নারী জিরাফ রয়েছে। এখন পুরুষ শূন্য হয়ে পড়ল জিরাফ পরিবার।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক কর্মকর্তা জানান,চিকিৎসকের দায়িত্বে অবহেলার কারণে জিরাফটি মারা গেছে।  পার্কে দুইজন প্রাণি চিকিৎসক রয়েছে। একজন ভেটেরিনারি সার্জন ও একজন সহকারী ভেটেরিনারি সার্জন। কিন্ত তারা সঠিক ভাবে জিরাফ গুলোর চিকিৎসা নিতো না। 

এ বিষয়ে সহকারী ভেটেরিনারি সার্জন ডা. নিজামের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, সব কিছুই তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র। পার্কে অব্যবস্থাপনার কারণেই জিরাফটি মারা গেছে।

সাফারি পার্কের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম জানান, বুধবার সকালে ওই জিরাফটির মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। জিরাফ নিহতের ঘটনায়   ৩ সদস্য বিশিষ্ট চিকিৎসক টিম গঠন করা হয়েছে। 

ট্যাগ: bdnewshour24 শেখ মুজিব সাফারী পার্ক জিরাফ পরিবার