banglanewspaper

পিরোজপুর প্রতিনিধি: পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলার নদমূলা গ্রামে স্বজল ও রাকিব নামের  দুই বখাটে কর্তৃক অষ্টম শ্রেণী পড়ুয়া এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার দুপুরে।

ভুক্তভোগি মেয়েটির বাবা জানান, সোমবার বেলা ১১ টার দিকে মেয়েটি পার্শ্ববতী হেতালিয়া গ্রামে তার অসুস্থ মায়ের কাছে নানা বাড়িতে যাচ্ছিল। সে স্থানীয় তোজের বাড়ির সামনের সড়কে পৌছলে নদমূলা গ্রামের আলম জোমাদ্দারের লম্পট ছেলে স্বজল এবং তার অপর সহযোগি উপজেলার ভিটাবাড়ীয়া গ্রামের কালাম মোল্লার ছেলে রাকিব তার মেয়ের মুখ চেপে ধরে জোরপূর্বক একটি পানের বরজে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে এবং মোবাইল ফোনে ভিডিও চিত্র ধারণ করে। মেয়েটিকে হুমকি প্রদান করে কাউকে জানালে ওই ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দেয়া হবে।

একদিন পরে মেয়েটি তার স্বজনদের কাছে ঘটনাটি জানালে তার বাবা মামলা করতে চাইলে ওই দুই বখাটে বিষয়টি টের পেয়ে মেয়েটির বড়ভাইকে ডেকে ধর্ষণের ভিডিও দেখিয়ে ইন্টারনেটে ছেড়ে দেয়ার হুমকি প্রদান করে।

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে মেয়ের বাবা বাদী হয়ে স্বজল ও রাকিবকে আসামী করে ভান্ডারিয়া থানায় মামলা করেছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

ভান্ডারিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শাহাবুদ্দিন জানান এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে এবং ভিকটিমকে পরীক্ষার জন্য পিরোজপুর পাঠানো হয়েছে।

ট্যাগ: bdnewshour24 পিরোজপুর ধর্ষণ