banglanewspaper

ইতিহাসের প্রথম ক্রিকেটার হিসাবে একই সাথে আইসিসির সেরা তিন পুরস্কার জিতলেন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি। ২০১৮ সালে তিন ফরম্যাটেই দুর্দান্ত ছিলেন তিনি। সেরা পারফরম্যান্সের স্বীকৃতি স্বরূপ আইসিসি বর্ষসেরা ক্রিকেটার নির্বাচিত হয়েছেন তিনি। অর্থাৎ, স্যার গারফিল্ড সেবার্স ট্রফি জিতেছেন তিনি। সেই সাথে টেস্টে এবং ওয়ানডেতেও বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার জিতেছেন বর্তমান সময়ে বিশ্বের অন্যতম সেরা এই তারকা।

শুধু তাই নয়, ২০১৮ সালের আইসিসি বর্ষসেরা টেস্ট এবং ওয়ানডে একাদশের অধিনায়কও তিনি। সেরা উদীয়মান খেলোয়াড়ের পুরস্কার জিতেছেন ভারতের ২১ বছর বয়সী রিশাব পান্ত। নারীদের ক্রিকেটেও বর্ষসেরা ক্রিকেটারের পুরস্কার জিতেছেন ভারত থেকে। পুরস্কারটি জিতেছেন স্মৃতি মন্ধনা। বাংলাদেশ থেকে একমাত্র খেলোয়াড় হিসাবে বর্ষসেরা ওয়ানডে একাদশে জায়গা পেয়েছেন ‘কাটার মাস্টার’ মোস্তাফিজুর রহমান। মঙ্গলবার বর্ষসেরা ক্রিকেটার এবং বর্ষসেরা টেস্ট ও ওয়ানডে একাদশ ঘোষণা করে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)।

২০১৮ সালে টেস্টে ১৩ ম্যাচ খেলে ৫৫.০৮ গড়ে কোহলি করেন ১৩২২ রান। এর মধ্যে পাঁচটি সেঞ্চুরি রয়েছে তার। ওয়ানডেতে ১৪ ম্যাচ খেলে ১৩৩.৫৫ ব্যাটিং গড়ে তিনি করেন ১২০২ রান। টি-টোয়েন্টিতে ১০ ম্যাচ খেলে ২১১ রান করেন তিনি।

পুরস্কার জেতার পর বিরাট কোহলি বলেছেন, ‘চমৎকার অনুভূতি। বছর জুড়ে আপনি যে কঠোর পরিশ্রম করেছেন তার পুরস্কার এটি। খুবই ভালো লাগছে। নিজে ভালো খেলছি, দলও ভালো করছে। বিশ্ব পর্যায়ে আইসিসি কর্তৃক এমন স্বীকৃতি পাওয়াটা গর্বের। কারণ বিশ্বে অনেক ক্রিকেটার ক্রিকেট খেলছে। সবার মধ্যে পুরস্কার জিততে পারাটা আমার কাছে বিশেষ মুহূর্ত। সামনে আরো ভালো খেলতে এই পুরস্কার আমাকে অনুপ্রেরণা যোগাবে। আপনাকে নিয়মিত ভালো খেলতে হবে। আর তাতে অতিরিক্ত মোটিভেশন হিসাবে কাজ করবে এই পুরস্কার।’

আইসিসি ২০১৮ সালের যে সেরা টেস্ট একাদশ ঘোষণা করেছে তাতে নিউজিল্যান্ড থেকে তিনজন, শ্রীলঙ্কা থেকে একজন, ভারত থেকে তিনজন, ওয়েস্ট ইন্ডিজ থেকে একজন, দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে একজন, পাকিস্তান থেকে একজন ও অস্ট্রেলিয়া থেকে একজন করে ক্রিকেটার জায়গা পেয়েছেন। এই একাদশে অধিনায়ক করা হয়েছে ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে। উইকেটরক্ষক করা হয়েছে ভারতের রিশাব পান্তকে।

বর্ষসেরা ওয়ানডে একাদশে বাংলাদেশ থেকে একজন, ভারত থেকে চারজন, ইংল্যান্ড থেকে চারজন, নিউজিল্যান্ড থেকে একজন ও আফগানিস্তান থেকে একজন করে ক্রিকেটার জায়গা পেয়েছেন। ওয়ানডে একাদশেরও অধিনায়ক বিরাট কোহলি। উইকেটরক্ষক হিসাবে রাখা হয়েছে ইংল্যান্ডের জস বাটলারকে।       

কে কোন পুরস্কার জিতলেন:

আইসিসি ক্রিকেটার অব দ্য ইয়ার: বিরাট কোহলি (ভারত)

আইসিসি টেস্ট ক্রিকেটার অব দ্য ইয়ার: বিরাট কোহলি (ভারত)

আইসিসি ওডিআই ক্রিকেটার অব দ্য ইয়ার: বিরাট কোহলি (ভারত)

আইসিসি টি-টোয়েন্টি পারফরম্যান্স অব দ্য ইয়ার: অ্যারোন ফিঞ্চ (অস্ট্রেলিয়া)

আইসিসি ইমার্জিং প্লেয়ার অব দ্য ইয়ার: রিশাব পান্ত (ভারত)

আইসিসি অ্যাসোসিয়েট প্লেয়ার অব দ্য ইয়ার: ক্যালাম ম্যাকলেউড (স্কটল্যান্ড)

আইসিসি স্পিরিট অব ক্রিকেট অ্যাওয়ার্ড: কেন উইলিয়ামসন (নিউজিল্যান্ড)

আইসিসি আম্পায়ার অব দ্য ইয়ার: কুমার ধর্মসেনা (শ্রীলঙ্কা)

আইসিসি উইমেন্স ক্রিকেটার অব দ্য ইয়ার: স্মৃতি মন্ধনা (ভারত)

আইসিসি উইমেন্স ওডিআই ক্রিকেটার অব দ্য ইয়ার: স্মৃতি মন্ধনা (ভারত)

আইসিসি উইমেন্স টি-টোয়েন্টি প্লেয়ার অব দ্য ইয়ার: অ্যালিসা হিলি (অস্ট্রেলিয়া)

আইসিসি উইমেন্স ইমার্জিং ক্রিকেটার অব দ্য ইয়ার: সোফি এক্লেস্টোন (ইংল্যান্ড)

আইসিসি বর্ষসেরা টেস্ট একাদশ: টম লাথাম (নিউজিল্যান্ড), দিমুথ করুণারত্নে (শ্রীলঙ্কা), কেন উইলিয়ামসন (নিউজিল্যান্ড), বিরাট কোহলি (ভারত, অধিনায়ক), হেনরি নিকোলস (নিউজিল্যান্ড), রিশাব পান্ত (ভারত, উইকেটরক্ষক), জ্যাসন হোল্ডার (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), কাগিসো রাবাদা (দক্ষিণ আফ্রিকা), নাথান লায়ন (অস্ট্রেলিয়া), জ্যাসপ্রীত বুমরাহ (ভারত), মোহাম্মদ আব্বাস (পাকিস্তান)।

আইসিসি বর্ষসেরা ওয়ানডে একাদশ: রোহিত শর্মা (ভারত), জনি বেয়ারস্টো (ইংল্যান্ড), বিরাট কোহলি (ভারত, অধিনায়ক), জো রুট (ইংল্যান্ড), রস টেইলর (নিউজিল্যান্ড), জস বাটলার (ইংল্যান্ড, উইকেটরক্ষক), বেন স্টোকস (ইংল্যান্ড), মোস্তাফিজুর রহমান (বাংলাদেশ), রশীদ খান (আফগানিস্তান), কুলদীপ যাদব (ভারত), জ্যাসপ্রীত বুমরাহ (ভারত)।

ট্যাগ: bdnewshour24 আইসিসি বর্ষসেরা কোহলির ইতিহাস