banglanewspaper

আলফাজ সরকার আকাশ, শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি: গাজীপুরের শ্রীপুরে গৃহপালিত ছয় কুকুরছানাকে প্রকাশ্যে গলাকেটে হত্যার পর ওই পরিবারের সবাইকে জবাই করে হত্যার হুমকির অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গৃহপালিত কুকুর ছানাদের হারানোর শোকে ওই পরিবারের সবাই কান্নায় ভেঙ্গে পড়েছে। গত ৩১ জানুয়ারী উপজেলার মাওনা ইউনিয়নের দক্ষিন বারতোপা গ্রামের গৃহবধূ আলেয়া বেগমের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

এ ব্যাপারে ২ ফেব্রুয়ারী শনিবার বিকেলে আলেয়া বেগম বাদী হয়ে শ্রীপুর থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।

অভিযোগে জানা গেছে, নোয়াখালি জেলার মৃত বাহাদুর খাদেমের স্ত্রী আলেয়া বেগম তার স্বামী মারা যাওয়ার পর ওই গ্রামে জমি ক্রয় করে বসবাস করছেন। স্বামী না থাকার সুযোগে একই এলাকার আরিফ (২৮) ও হাতেম আলীর পুত্র হাশেম (৫০) গৃহবধূকে উচ্ছেদ করে ওই জমি জবর দখলের চেষ্টা করে।

এ নিয়ে তাদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে ঝগড়া বিবাদ চলছিল। বৃহস্পতিবার বিকেলে গৃহবধূর জমি দখল করতে না পেরে তার মেয়ে খাদিজাকে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করে ও তাদের গৃহপালিত ৬টি কুকুর ছানাকে একেক করে প্রকাশ্যে গলা কেটে হত্যা করে দরজার সামনে ফেলে রাখে।

গৃহবধূর আলেয়া বেগম জানান, হামলাকারীরা কুকুরের ছানাকে যেভাবে জবাই করেছে সেভাবেই আমাদেরকে জবাই করে হত্যা করবে বলে হুমকি দিচ্ছে। 
মাওনা ইউনিয়ন পরিষদের ৪নং ওয়ার্ড সদস্য সুরুজ্জামান জানান, কিছু দুস্কৃতিকারী লোক ওই বিধবা মহিলার জমি দখলের চেষ্টা করছে বলে আমাকে জানিয়েছে। আমি তাকে প্রশাসনের কাছে আইনের আশ্রয় নেয়ার পরামর্শ দিয়েছি। 

এ ব্যাপারে উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. আব্দুল জলিল জানান, `কোন পশুর সাথে নির্দয় ও নিষ্ঠুর আচরন করলে তার বিরুদ্ধে ১৯৮২ সনের এ্যানিমেল ক্রোয়ালিটি আইনে শাস্তির ব্যবস্থা রয়েছে।'

ট্যাগ: bdnewshour24 বিধবা কুকুরছানা গলাকেটে হত্যা