banglanewspaper

শরীরের গড়ন নিয়ে সচেতন নন এমন মানুষের সংখ্যাও নেহায়েত কম নয়। আর গবেষকরা এবার এমন তথ্যই দিলো যা শুনে শরীর সচেতনদের খুশি হওয়ারই কথা। ‘বডি ইমেইজ’ নামক জার্নালে গবেষণাটি প্রকাশিত হয়।

গবেষকদের মতে, শরীরের গড়ন নিয়ে সচেতন নন- এমন মানুষের সান্নিধ্যে থাকলে নিজের শরীরের প্রতি বেশি বেশি যত্নবান হওয়া যায়। নিজের ফিগারের প্রতি সেটিশফেকশনও বাড়বে। 

শারীরিক গড়নের ওপর করা এক পর্যবেক্ষণে কানাডায় অবস্থিত ইউনিভার্সিটি অফ ওয়াটারলু’র গবেষকরা দেখিয়েছেন, শরীরের ওজন, গড়ন ও বাহ্যিক সৌন্দর্য নিয়ে সচেতন নয় এমন মানুষের সঙ্গে মেলামেশায় রয়েছে ইতিবাচক প্রভাব।

ক্যাথরিন মিলার নামের এক শিক্ষার্থী বলেন, ‘নিজের শরীর সম্পর্কে আমাদের অনুভূতির একটি বড় অংশ নির্ভর করে শারীরিক গড়ন নিয়ে সামাজিক দৃষ্টিভঙ্গির ওপর। আমাদের আশপাশের মানুষগুলো যদি তাদের শারীরিক গড়ন নিয়ে অতিরিক্ত সচেতন না হয়, তবে আমাদের নিজের শরীরের প্রতি সন্তুষ্টির মাত্রা বাড়ে।’

১৭ থেকে ২৫ বছর বয়সী অন্তত ১০০ জন নারীর ওপর গবেষণা চালিয়ে এমন তথ্য জানান গবেষকরা। 

তাতে দেখা যায়, নিজের শারীরিক গড়ন নিয়ে অসন্তুষ্টি ওই ব্যক্তির মন-মেজাজ, আত্মবিশ্বাস, অন্যদের সঙ্গে সম্পর্ক ইত্যাদির ওপর মারাত্মক ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে।

ইউনিভার্সিটি অফ ওয়াটারলু’র অধ্যাপক অ্যালিসন কেলি বলেন, ‘যাদের সঙ্গে আমরা সময় ব্যয় করি তারা আমাদের দৈহিক গড়নের সন্তুষ্টিকে যে প্রভাবিত করে সেটা বিবেচনায় রাখা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।’ 

ট্যাগ: bdnewshour2 চেহারা