banglanewspaper

জামাকাপড় ধোওয়ার কাজ সহজ করে দিতে প্রযুক্তি আমাদের হাতে তুলে দিয়েছে ওয়াশিং মেশিন। সাধারণত আমরা ওয়াশিং মেশিনে জামাকাপড়ই কাচি। তবে অনেকেই পর্দাও কেচে থাকেন। অনেকই আবার জানেনই না ওয়াশিং মেশিনে কাপড়-চোপড় ছাড়াও অনেক কিছুই কাচা যায়। 

খেলার সরঞ্জাম: খেলাধুলার নানা সরঞ্জাম আপনি সহজেই ওয়াশিং মেশিনে দিতে পারেন। জার্সি তো বটেই, টুপি, গ্লাভস, প্যাড, হ্যান্ডব্যান্ড ইত্যাদি ওয়াশিং মেশিনে পরিস্কার করতে পারেন। স্লো ওয়াশিং সাইকেল পদ্ধতিতে ও হালকা ক্ষারযুক্ত কোনও ডিটারজেন্ট ব্যবহার করে এসব পরিস্কার করুন। 

বাজারের ব্যাগ: বাজারের ধুলা-বালিতে ব্যাগ নোংরা হয়ে যাওয়াই স্বাভাবিক। সঙ্গে কাঁচা শাক-সব্জির ও মাছ-মাংসের দাগেও ব্যাগ নোংরা হয়। চটের বা কাপড়ের তৈরি ব্যাগও ওয়াশিং মেশিনে কাচতে পারেন।

রান্নাঘরের সরঞ্জাম: ওভেনের মুখের রাবারব্যান্ড হোক বা টেবিল ম্যাট, কাটাকুটি করার রবারের জায়গা-এসবও ওয়াশিং মেশিনে নিশ্চিন্তে কাচুন। এগুলো ঠান্ডা পানি ব্যবহার করে কাচুন। 

গৃহস্থালীর সরঞ্জাম: পাপোশ, মাউজ প্যাড, ব্যায়ামের ম্যাট ওয়াশিং মেশিনে অনায়াসেই কাচতে পারেন । তবে এসব কাচার সময় কখনওই গরম পানি ব্যবহার করবেন না। 

জুতা: ওয়াশিং মেশিনে জুতা কাচতে পারেন। কাপড়ের যে কোনও জুতা পরিস্কার করতে ওয়াশিং মেশিন ব্যবহার করতে পারেন। তবে জুতা চামড়ার হলে ভুলেও ওয়াশিং মেশিনে দেবেন না।

ট্যাগ: bdnewshour24 ওয়াশিং মেশিন কাচা যায়