banglanewspaper

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নতুন মেয়াদে বাংলাদেশের সাথে কাজ করার প্রতিশ্রুতি পুনর্ব্যক্ত করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। একই সঙ্গে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে অংশীদারিত্ব আরও জোরদার হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেছেন।

বৃহস্পতিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে নয়াদিল্লিতে সফররত পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে সাক্ষাৎ করলে তিনি এ মন্তব্য করেন। খবর- ইউএনবি

নতুন সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পর প্রথম বিদেশ সফরে বুধবার (৬ ফেব্রুয়ারি) রাতে নয়াদিল্লি গেছেন ড. এ কে আবদুল মোমেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে নিযুক্ত হওয়ায় মোমেনকে অভিনন্দন জানান মোদি। এ সময় পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশ-ভারতের সাম্প্রতিক দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের উন্নয়নের কথা তুলে ধরেন।

সাক্ষাৎকালে মোদি বলেন, গত কয়েক বছরে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক আরও ঊর্ধ্বগামী হয়েছে। শেখ হাসিনার ‘দূরদৃষ্টিসম্পন্ন’ নেতৃত্বে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে অংশীদারিত্ব আরও জোরদার হবে।

এছাড়া ভারতের প্রতিবেশী, আঞ্চলিক উন্নয়ন, নিরাপত্তা ও সহযোগিতার জন্য ঘনিষ্ঠ অংশীদার বাংলাদেশের সঙ্গে সংযুক্ত হওয়ার অগ্রাধিকারকে পুনর্ব্যক্ত করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী।

ড. এ কে আবদুল মোমেন তার ভারত সফরে শুক্রবার (৮ ফেব্রুয়ারি) ৫ম জয়েন্ট কনসালটেটিভ কমিশন (জেসিসি) বৈঠকে যোগ দেবেন। অনুষ্ঠানে ড. মোমেন ও ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ নিজ নিজ দেশের প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেবেন।

জানা গেছে, পররাষ্ট্রমন্ত্রীর এ সফরে আশা করা হচ্ছে, বাংলাদেশের দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) এবং ভারতের সেন্ট্রাল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (সিবিআই), রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন বাংলাদেশ টেলিভিশন (বিটিভি) এবং ভারতের প্রসার ভারতী এবং দুই দেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রীর মধ্যে আরও একটি এমওইউ সই হতে পারে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে প্রথম বিদেশ সফর শেষে শনিবার (৯ ফেব্রুয়ারি) সকালে ড. মোমেন ঢাকার উদ্দেশে নয়াদিল্লি ত্যাগ করবেন।

ট্যাগ: bdnewshour24 বাংলাদেশ ভারত মোদি