banglanewspaper

পিরোজপুর প্রতিনিধি: পিরোজপুরের স্বরূপকাঠীতে আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও বয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ করে মাহফিলের নামে স্টল করে নিজস্ব সুদের ব্যবসার প্রচার প্রচারণা চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে 'এহসান গ্রুপ, পিরোজপুর' নামে একটি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে। 

স্থানীয়রা জানায়, আট দিন নিয়মিত প্রচার প্রচারণা শেষে আজ ৭ ফেব্রুয়ারি সকাল ৯টায় শুরু হয় এহসান গ্রুপ পিরোজপুর আয়োজিত মাহফিল। বাহ্যিক দৃষ্টিতে মাহফিল মনে হলেও কার্যত সুদ ব্যবসার প্রচার প্রচারণা ও সদস্য সংগ্রহের কার্যক্রম চালানো এবং এলাকাবাসীকে আকৃষ্ট করার জন্য হেলিকপ্টার ও স্পিডবোড ব্যবহার করে বক্তাদের উপস্থিত করা হয়েছে বলে অভিযোগ স্খানীয়দের। মাহফিল প্যান্ডেলের মধ্যেই শুধুমাত্র এহসান গ্রুপের সঞ্চয় ও ঋণদান সমবায় সমিতি লিঃ, এহ্সান মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিঃ সহ রয়েছে একাধিক ব্যবসার স্টল।

এদিকে ওয়াজ মাহফিলে জেলা প্রশাসকের অনুমতি প্রদানের ক্ষেত্রে ‘স্কুল কলেজের ছাত্র/ছাত্রীদের লেখাপড়ায় বিঘ্ন ঘটে এমন উচ্চস্বরে শব্দযন্ত্র ব্যবহার করা যাবেনা’ এমন শর্ত উল্লেখ থাকলেও কার্যত ক্ষেত্রে আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও বয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যায়ের পাঠদান বন্ধসহ ক্লাশরুমগুলো তালাবদ্ধ দেখা গেছে।

এ বিষয়ে সঞ্চয় ও ঋণদান সমবায় সমিতি লিঃ এর স্টল পরিচালক বলেন, আমরা মাহফিল করে ধর্ম প্রচারও করছি এবং নিজেদের ব্যবসাও করছি। ঋণের টাকায় পণ্য নিলে ৩ মাসের কিস্তিতে ৫% লভ্যাংশ নেই, ৬ মাসে পরিশোধ করলে ১০% লভ্যাংশ নেই। 

এহসান গ্রুপের অন্য স্টলের পরিচালক জানায়, তাদের মাদ্রাসাসহ বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে সেখানে বিনিয়োগ করলে লাভের ৬৫% পাবে গ্রাহক আর ৩৫% প্রতিষ্ঠান আর ক্ষতি হলে ক্ষতির ভাগও বহন করতে হবে গ্রাহককে।

এ বিষয়ে এহসান গ্রুপের মাহফিল পরিচালকের বক্তব্য নিতে চাইলে তিনি ক্যামেরার সামনে কথা বলতে অপ্রস্তুত বলে জানান। এক পর্যায়ে ধর্মের নামে ব্যবসার নিউজ ধামাচাপা দিতে জোর অনুরোধ করেন এবং নগদ টাকার অফার করেন।

১ নং বলদিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহীন আহমেদ বলেন, ইসলাম প্রচারে মাহফিল করবেন এবং ডিসির অনুমোদন রয়েছে জেনে আমি বাধা দেইনি কিন্তু দুইটি বিদ্যালয় বন্ধ করে দিয়ে ধর্মের নামে এধরণের সুদের ব্যবসার প্রচার আগে কখনও শুনিনি। 

এ বিষয়ে পিরোজপুর জেলা প্রশাসক আবু আলী মোঃ সাজ্জাদ হোসেন বলেন, বিদ্যালয় বন্ধ করে মাহফিল করার অনুমতি দেয়া হয় নি, ধর্মের নামে সুদের ব্যবসার বিষয়টি আমি স্বরূপকাঠি উপজেলা প্রশাসনের মাধ্যমে তদন্ত করে দেখব।

ট্যাগ: bdnewshour24 পিরোজপুর