banglanewspaper

একটি অ্যাপ ব্যবহার করে সৌদি আরবের নারীদের ট্রাক করে সৌদি পুরুষরা। নারীরা কোথায় যাচ্ছেন, কি করছেন, দেশ ছেড়ে পালিয়ে যাচ্ছেন কি না এমন স্পর্শকাতর বিষয়গুলো ওই অ্যাপের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ করেন সৌদি পুরুষরা। এই অ্যাপটি  তৈরি ও পরিচালনা করে খোদ সৌদি সরকার।

আবশের নামের ওই ফ্রি অ্যাপটি ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছে অ্যাপলের আই টিউনস এবং গুগলের প্লে স্টোর। এ কারণে আরবে লিঙ্গ বৈষম্য প্রয়োগে সহযোগীতার অভিযোগ উঠেছে বিশ্বখ্যাত প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান অ্যাপল ও গুগলের বিরুদ্ধে।  নারীদের দেশ ত্যাগ ঠেকাতে ভ্রমণবিষয়ক এই অ্যাপটি পরিচালনা করে সৌদি সরকার। ইতোমধ্যে অ্যাপটি দশ লাখের বেশি মানুষ ডাউনলোড করেছে।  খবর ডেইলি মেইল অনলাইনের।

আবশের অ্যাপে পুরুষরা নারীদের ট্রাক করতে পারেন এবং যদি কোনো নারী দেশ ত্যাগ করতে যায় তাহলে সঙ্গে সঙ্গেই অ্যাপটি ওই নারীর বিষয়ে তার পুরুষ অভিভাবককে সতর্কবার্তা পাঠায়। এছাড়া সে কিভাবে কোন পথে সীমান্ত অতিক্রম করছে তাও জানিয়ে দেয়। ওই অ্যাপটি নারীদের অভিভাবককে জানাতে পারে যে, কোথায় নারীরা যেতে পারে এবং কতক্ষণ থাকতে পারে। এছাড়া কোন বিমানবন্দরে ওই নারীর যাওয়ার অনুমতি রয়েছে তাও জানিয়ে দেয়। এসবই নিয়ন্ত্রণ করতে পারে কোনো নারীর পুরুষ অভিভাবক।

অনুমোদিতে এলাকার বাইরে কোনো নারী যাওয়ার চেষ্টা করলেই পুরুষ অভিভাবকের কাছে সতর্কবার্তা পাঠায় অ্যাপটি। এ কারণে অনেক সৌদি নারী দেশ ছেড়ে পালাতে চাইলেও তা করতে পারেন না। কেউ কেউ চেষ্টা করলেও গ্রেপ্তার হচ্ছেন।

অ্যাপের অন্য একটি অপশনে গিয়ে পুরুষ অভিভাবক সহজেই কোনো নারীর অনুমোদিত জায়গাগুলো দেখতে পারেন এবং প্রয়োজনে সে নিজে তা পরিবর্তন করতে পারেন।

সৌদি আরবে লিঙ্গ বৈষম্য এবং নারীদের প্রতি অত্যাচারের ঘটনা প্রায়ই আলোচনায় আসে। সৌদি নারীদের সবকিছু নিয়ন্ত্রণ করেন তাদের পুরুষ আভিভাবকরা। তারা তাদের ইচ্ছেমত তেমন কিছুই করতে পারেন না। এমন অবস্থায় সামাজিক ও পারিবারিক স্বাধীনতা না থাকায় দেশ থেকে পালিয়ে বিভিন্ন দেশে আশ্রয় নেন অনেকে। সম্প্রতি দুই সৌদি তরুণীর দেশ থেকে পালানোর ঘটনা সামনে আসলে তা ব্যাপক আলোচিত হয়।

ট্যাগ: bdnewshour2 সৌদি