banglanewspaper

বলিউডে কোনো কিছুই নিশ্চিত নয়। অর্থবিত্ত, তারকাখ্যাতি, সৌভাগ্য, এমনকি সম্পর্ক—সব অনিশ্চিত। যদিও অনেক যুগল বেশ সুখেই দাম্পত্য জীবন কাটাচ্ছেন, বেশ কয়েক বন্ধন বেজোড় হওয়ায় ভালোবাসা ও বিয়ে সম্পর্কে বি-টাউন অনুরাগীদের হৃদয় ভেঙে গেছে!

এঁদের অন্যতম অভিষেক বচ্চন ও কারিশমা কাপুর—যাঁদের প্রেম বাগদান পর্যন্ত গড়িয়েছিল, কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা হয়নি। আর এই দুঃসহ স্মৃতি কখনোই মন থেকে মুছে ফেলতে পারবেন না বলিউড অনুরাগীরা।

বলা হয়, বোন শ্বেতা বচ্চন নন্দার বিয়েতে প্রথম দেখা হয়েছিল অভিষেক বচ্চন ও কারিশমা কাপুরের। প্রথম দর্শনেই দুজনের মনে জ্বলে ওঠে প্রেমের স্ফুলিঙ্গ। বয়সে যদিও অভিষেকের চেয়ে কয়েক বছরের বড় কারিশমা, তবু সম্পর্কে তা কোনো বাধা হয়ে দাঁড়ায়নি। আনুষ্ঠানিকভাবে আংটিবদলের ঘোষণার আগে এ যুগল প্রেম করেছেন টানা পাঁচ বছর।

যা হোক, হঠাৎই সংবাদমাধ্যমগুলোতে চোখ রেখে ভক্তদের চক্ষু ছানাবড়া—বাগদানের অনুষ্ঠান স্থগিত করা হয়েছে!

কিন্তু হঠাৎ করেই কেন বিচ্ছেদ হলো অভিষেক-কারিশমার? পত্রপত্রিকায় নানা খবর, নানা তত্ত্ব হাজির হয়েছিল তখন। শোনা গিয়েছিল, এই বিচ্ছেদের পেছনে ছিলেন কারিশমা কাপুরের মা ববিতা, যিনি খুব কষ্ট করে তাঁর মেয়েদের বড় করেছেন। আর তিনিই নিয়েছিলেন এই হৃদয়ভাঙা সিদ্ধান্ত।

জনপ্রিয় বিনোদন সাময়িকী কসমোপলিটন প্রতিবেদনে জানিয়েছিল, বচ্চন পরিবারের আর্থিক অবস্থা নিয়ে বেশ চিন্তিত ছিলেন কারিশমার মা ববিতা। ওই সময় বচ্চন পরিবারের আর্থিক সংকট চলছিল, আর সেটাই ববিতার মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। তা ছাড়া তাঁর মেয়ে সে সময় জনপ্রিয় তারকা, টাকা কামান দুই হাতে। ববিতা চেয়েছিলেন তাঁর মেয়ের ভবিষ্যৎ আর্থিক সুরক্ষায় থাকুক। তাই বাগদান স্থগিত করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তিনি।

অভিষেক ও কারিশমা দুজনেই খুব আহত হয়েছিলেন। সেই ভঙ্গুর অবস্থা কাটিয়ে উঠতে দুজনেরই সময় লেগেছে।

যা হোক, সেসব দিন আজ সুদূর অতীত। কয়েক দশকে সাগরে মিশেছে বহু নদীর জল। ফিকে হয়েছে রঙিন স্মৃতি। অভিষেক বচ্চন এখন সাবেক বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বরিয়া রাইয়ের সঙ্গে সুখী দাম্পত্য জীবন কাটাচ্ছেন। তাঁদের ঘরে আরাধ্যা নামে ফুটফুটে কন্যাসন্তানও আছে।

অন্যদিকে, সঞ্জয় কাপুরের সঙ্গে বিয়ের পিঁড়িতে বসেছিলেন কারিশমা কাপুর, যদিও কয়েক বছর পর সেই বিয়ে ভেঙে গেছে। কারিশমার রয়েছে দুই আদুরে পুত্র ও কন্যাসন্তান।

ট্যাগ: bdnewshour24 অভিষেক কারিশমা